১৩শ’ যৌনকর্মীকে ঈদ ও খাদ্যসামগ্রী দিলেন ডিআইজি হাবিবের উত্তরণ ফাউন্ডেশন

সর্বাত্মক লকডাউনে অসহায় হয়ে পড়েছেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর যৌনজীবীরা। পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান তার জন্মদিন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ পল্লীর ১৩শ’ অসহায় যৌনজীবীর মাঝে ঈদ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। বিতরণকৃত সামগ্রীর মধ্যে ছিল জনপ্রতি পোলাওয়ের চাল ১ কেজি, সয়াবিন তেল ১ কেজি, ডাল ৫০০ গ্রাম, চিনি ১ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট, দুধ ১ প্যাকেট, বিস্কুট ১ প্যাকেট, খেজুর ৫০০ গ্রাম, আলু ১ কেজি, পেঁয়াজ ১ কেজি, ছোলা ১ কেজি এবং সাবান ১টি।
ডিআইজি হাবিবুর রহমানের নিজস্ব সংগঠন উত্তরণ ফাউন্ডেশনের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এ সামগ্রীগুলো বিতরণ করা হয়। রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান ডিআইজি হাবিবের পক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এ বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. সালাহউদ্দিন, গোয়ালন্দঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর, যৌনজীবীদের সংগঠন অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
যৌনপল্লীর পার্শ্ববর্তী উত্তর দৌলতদিয়া সোহরাপ মণ্ডলপাড়ায় ইউপি সদস্য আব্দুল জলিল ফকিরের বাড়ির আঙিনা হতে এ খাদ্যসামগ্রীগুলো বিতরণ করা হয়। অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম বলেন, করোনার কারণে গত একটি বছর ধরে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দারা অসহায় জীবনযাপন করছে। দুঃসময়ে বারবার পল্লীর এসব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোয় আমরা ডিআইজি স্যারের প্রতি চির কৃতজ্ঞ। জন্মদিনে পল্লীবাসীর পক্ষ হতে তাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর বলেন, ডিআইজি স্যারের আজ শুভ জন্মদিন। তবে শুধু জন্মদিন বলে নয়, ডিআইজি এমনিতেই যে কোনো দুর্যোগ-দুঃসময়ে এ রকম অসহায় মানুষের জন্য সেবার হাত বাড়িয়ে দেন। রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বলেন, ডিআইজি হাবিবুর রহমান তার উত্তরণ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে আসছেন। যৌনকর্মীরা তাদের অন্যতম। গত বছর লকডাউনের সময়ও দেশের সর্ববৃহৎ এ যৌনপল্লীতে ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে ব্যাপক ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এবারো তিনি খবর পেয়ে চলমান লকডাউনে অসহায় যৌনকর্মীদের পাশে দাঁড়ালেন। এ কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে চলমান থাকবে বলে তিনি জানান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More