বিদ্যুতের পড়ে থাকা তারে স্পৃষ্টে দুটি গরুর মৃত্যু : সেচ পাম্প মালিক বেল্টুর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

ডিঙ্গেদহ প্রতিনিধি:
সেচ পাম্পের মটর সংযোগের বিদ্যুতের পড়ে থাকা তার স্পর্শ হয়ে কৃষকের ২টি গরু মৃত্যু বরন করেছে। গতকাল শুক্রুবার বিকাল ৫টার চুয়াডাঙ্গা সদরের শংকরচন্দ্র হানুরবাড়াদী মাঠে গরু চরাতে গেলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্থ গরুর মালিক আহসান বাদী হয়ে মটর মালিক হানুরবাড়াদী কাজী পাড়ার ইমরান মেম্বরের ছেলে বেল্টুর বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।
এ ব্যাপারে গরুর মালিক শংকরচন্দ্র এশিয়া পাড়ার মকবুল হোসেনের ছেলে আহসান ও এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন চুয়াডাঙ্গা সদরের হানুরবাড়াদী কাজী পাড়ার ইমরান মেম্বরের ছেলে বেল্টু ডিঙ্গেদহ আনসার ক্যাম্পের নিকট হতে বিদ্যুতের সংযোগ নিয়ে একই তারের মাধ্যমে ৩টি সেচ পাম্পের মটর চালিয়ে আসছে। রাবারের কভার যুক্ত বিদ্যুতের তার ব্যবহার করার নিয়ম থাকলে ও বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ডের কিছু অসাধু ব্যক্তির সহযোগিতায় কভার বিহিন বিদ্যুতের তার ব্যবহার করে আসছে। এ তারগুলি বাশের খুটিতে বেধে ঝুলিয়ে রাখা হয়। বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন রহস্যজনক কারনে দেখে ও না দেখার ভান করে থাকেন। গতকাল শুক্রুবার জোরে বৃষ্টি হলে হানুরবাড়াদী মাঠে বাশের খুটি ভেঙ্গে বিদ্যুতের তার মাটিতে পড়ে যায়। ঐ মাঠে গতকাল শুক্রুবার বিকাল ৫টার সময় শংকরচন্দ্র এশিয়া পাড়ার মকবুলের ছেলে আহসান গরু চরাতে গেলে বিদ্যুতের তার স্পর্শ হয়ে একটি এ্যাড়ে গরু ও একটি গাভী গরু মারা যায়। পার আনুমানিক মুল্য ১লাখ ৩০হাজার টাকা। এ ব্যাপারে গতকালই আহসান বাদী হয়ে ইমরান মেম্বরের ছেলে বেল্টুর নামে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অভিযোগ করেছে। কয়েকদিন আগে ঐ মাঠে বিদ্যুতের তার স্পর্শ হয়ে একটি ছাগল মারা যায় এবং ২জন মানুষ বিদ্যুতের তার স্পর্শ হয়ে অর্পের জন্য প্রানে রক্ষা পায়। এ ঘটনা বার বার বিদ্যুত অফিসে অভিযোগ করে ও কোন ফল হয়নি। এ ব্যাপারে বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মঈনুদ্দিনের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন সংবাদ পেয়ে আমাদের লোকেরা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কভারযুক্ত তার না দিলে ঐ পাম্পে বিদ্যুত সংযোগ দেয়া হবে না।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More