হরিণাকুণ্ডতে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে রাস্তা তৈরির অভিযোগ : এলাকাবাসীর বাধা

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের হরিণাকু-ুতে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রাস্তা থেকে বারবার নিম্নমানের সামগ্রী সরিয়ে দিলেও ফের গায়ের জোরে একই সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। ঝিনাইদহের হরিণাকু-ু উপজেলার কাঁপাশহাটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের দৌলতপুর গ্রামের একটি গ্রামীণ রাস্তায় ইটের সলিং দ্বারা নির্মাণ কাজে এই অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, ২০২০-২০২১ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) প্রকল্পের আওতায় এক লাখ টাকা ব্যয়ে ওই গ্রামীণ রাস্তার ইটের সলিং দ্বারা নির্মাণ কাজের টেন্ডার সম্পন্ন করা হয়। এম আর এম নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ওই কাজটির টেন্ডার পান। ইতোমধ্যে ওই প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশও দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা ইবাদত হোসেন জানান, গ্রামের মাঠে যাতায়াতসহ নানা প্রয়োজনে মানুষের একমাত্র রাস্তা এটি। দীর্ঘদিন ধরেই এই রাস্তার জন্য ভোগান্তিতে রয়েছেন তারা। তিনি গ্রামের মানুষের কথা ভেবে নিজের ব্যক্তিগত জায়গা দিয়ে রাস্তা করতে দিয়েছেন। কিন্তু ঠিকাদার শুরু থেকেই এই রাস্তার কাজের জন্য ইটসহ অন্যান্য নি¤œমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ শুরু করেন। এলাকাবাসী ওই নি¤œমানের সামগ্রী সরিয়ে দিলেও ফের তারা ওই একই ইট ও সামগ্রী দিয়ে রাস্তার কাজ শুরু করেন। পরে বিষয়টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে জানানো হয়। কাঁপাশহাটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরাফত দৌলা ঝন্টু বলেন, গ্রামবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে আমিও ওই নি¤œমানের ইট সরিয়ে মানসম্পন্ন সামগ্রী দিয়ে কাজ করার জন্য ঠিকাদারকে বলেছি। এ বিষয়ে ঠিকাদার বকুল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে পরে কথা বলছি বলে ফোন কেটে দেন। উপজেলা প্রকৌশলী আরিফুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়ে সেখানে একজন কার্যসহকারী পাঠিয়েছিলেন। নি¤œমানের সামগ্রী সরিয়ে রাস্তায় সিডিউল অনুযায়ী কাজ করতে ঠিকাদারকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কাজে কোন ধরণের অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More