আলমডাঙ্গায় পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১০

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নাশকতা, জুয়া, ছিচকে চোরসহ ১০জনকে গ্রেফতার করেছে। ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি বুধ ও বৃহস্পতিবার দিনে ও রাতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা পৌর এলাকার এরশাদপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম বাদলের বসতবাড়িতে নিয়মিত জুয়া খেলার আসর বসে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলা অবস্থায় এরশাদপুর চাষিপাড়ার মৃত হোসেন আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম বাদল (৩৮), একই গ্রামের মৃত আজাহার আলীর দুই ছেলে সেলিম (৩২) ও  রুহুল আমীন (৪০), সাকের আলীর ছেলে মোহাম্মদ জাহিদকে (২৮) গ্রেফতার করে নিয়ে আসে। এ সময় তাদের নিকট থেকে জুয়া খেলার সরঞ্জমসহ নগদ ২৬শ টাকা উদ্ধার করে। পরে তাদেরকে সংশ্লিষ্ট মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে।

এছাড়াও নাশকতা মামলার আসামি বেলগাছি গ্রামের মৃত রাইল উদ্দিনের ছেলে আসাবুল হক রাসেল (৪০), একই ইউনিয়নের ডামোস গ্রামের আব্দুল খলিলের ছেলে আব্দুল মান্নানকে (৪৫) গ্রেফতার করে।

আলমডাঙ্গা পৌর এলাকায় বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই মামলার আসামি চোরচক্রের সদস্য ময়মনসিংহ জেলা ঈশ^রগঞ্জ থানার মাঝেরচর গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে পাবনা জেলার ঈশ^রদী পুলিশ লাইন মাঠের পাশের ভাড়াটিয়া মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে রাব্বিকে (২৪) আলমডাঙ্গা স্টেশন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে সংশ্লিষ্ট মামলায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আলমডাঙ্গায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে রেল স্টেশন এলাকা থেকে ৬শটি অ্যাম্পুল বুপ্রেনরফাইন ইনজেকশন উদ্ধার করে। এ সময় বুপ্রেনরফাইন ইনজেকশন বিক্রয় করতে আসা উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের মাঠপাড়ার চেতন আলী ম-লের ছেলে সাফায়েত আলী (৪৬) ও দিনাজপুর নবাবগঞ্জ উপজেলার আহাম্মেদগর গ্রামের মোস্তফার ছেলে রনি বাবুকে (২৩) গ্রেফতার করে। এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে আদালতের গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি গোবিন্দপুর পুরাতন বাসস্ট্যান্ডপাড়ার মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে সাহাবুল হককে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More