আলুকদিয়া ও কুতুবপুরে ভোট কারচুপি-কেন্দ্র দখলের অভিযোগ

চার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট বর্জন : ভুলটিয়া কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় ভোট কারচুপির অভিযোগে আলুকদিয়া ও কুতুবপুর ইউনিয়নে চার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন। গতকাল রোববার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ভোট বর্জন করেন তারা। ভোট বর্জনকারী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন আলুকদিয়া ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) ইসলাম উদ্দীন, কুতুবপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী (চশমা) জুয়েল রানা, একই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) সাখাওয়াত হোসেন টাইগার ও আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী (মোটরসাইকেল) নজরুল ইসলাম।
কুতুবপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী (চশমা) জুয়েল রানা জানান, ভোটের আগের রাত থেকেই আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর (নৌকা) কিছু কর্মী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার কর্মীদের হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে। সকালে ভোট শুরু হলে কেন্দ্র থেকে আমার নির্বাচন এজেন্টদের মারধর করে বের করে দেয় তারা। ব্যালট পেপারে জোরপূর্বক নিজ হাতে সিল মেরে নেয় নৌকার কর্মীরা। তিনি আরও বলেন, এক প্রকার রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। এখনও আমার নেতা কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে। নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকায় আমি ভোট বর্জন করছি।
অভিন্ন অভিযোগ তোলেন একই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) সাখাওয়াত হোসেন টাইগার ও আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী (মোটরসাইকেল) নজরুল ইসলাম। আলুকদিয়া ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী (আনারস) ইসলাম উদ্দীন জানান, ভোট দিতে যাওয়ার সময় আমার দুই কর্মীকে ছুরিকাঘাত করেছে নৌকার সমর্থকরা। এছাড়া কেন্দ্র থেকে আমার এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। জোরপূর্বক নৌকা প্রতীকে সিল মেরে নিচ্ছে তারা। তাই আমি ভোট বর্জন করছি।
অভিযোগ অস্বীকার করে আলুকদিয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) আবুল কালাম আজাদ জানান, নিজেরা মারামারি করে আমার কর্মীদের ওপর দোষারোপ করা হচ্ছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী ইসলাম উদ্দিনের জনসমর্থন না থাকায় ভোট বন্ধ করার পাঁয়তারা করছেন।
অপরদিকে, কুতুবপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান জানান, নির্বাচনের শুরু থেকেই তারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছেন। তাদের কোনো এজেন্টকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়নি। ভোটাররা নিজের পছন্দের প্রার্থীকেই ভোট দিচ্ছেন।
এদিকে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় কুতুবপুর ইউনিয়নের ভুলটিয়া কেন্দ্রে ভোট গ্রহন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। এ বিষয়ে সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, ভোট বর্জনকারী প্রার্থীরা আমাকে কোনো লিখিত অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। তিনি আরও জানান, নির্বাচনী এলাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ভুলটিয়া ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। সিদ্ধান্তের পর দুপুর ২টা থেকে ওই ভোট কেন্দ্রে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, বিচ্ছিন্ন কিছু অভিযোগ ছাড়া সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ হয়েছে। যে কেন্দ্রগুলোতে অভিযোগ রয়েছে সেসব বিষয়গুলো তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More