চুয়াডাঙ্গার গহেরপুরে ডাকাতির ঘটনায় নবাগত পুলিশ সুপারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

 

গড়াইটুপি প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার গহেরপুর-সড়াবাড়ীয়া সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন চুয়াডাঙ্গার নবাগত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন। গতকাল সোমবার দুুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে পরিদর্শন করেন। এ সময় সাথে উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) মুন্না বিশ্বাস, দর্শনা থানার অফিসার ইনচার্জ এএইচএম লুৎফুল কবীর, সাব ইন্সপেক্টর সোহেল, তিতুদহ ক্যাম্পের ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম, টুআইসি উত্তম কুমারসহ সঙ্গীয় ফোর্স। এ সময় নবাগত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল-মামুন বলেন, চুয়াডাঙ্গায় যোগদানের পরে ডাকাতির ঘটনার বিষয়টি জানতে পেরে সরেজমিনে পরিদর্শন আসি। কোনো নিরপরাধ ব্যক্তি যেনো সাজা না পায় সে বিষয়টি লক্ষ্য রেখে পুলিশ আরো তৎপর হয়ে কাজ করবে। ইতোমধ্যে মামলাটি জেলা গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) স্থানান্তর করা হয়েছে। সেজন্য সকলের একান্ত সহযোগিতার প্রয়োজন। এলাকার আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে আমরা বদ্ধ পরিকর। ডাকাতির মালামাল উদ্ধারে পুলিশ এখনও পর্যন্ত সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান পুলিশ সুপার।

উল্লেখ্য, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়নের গহেরপুর-সড়াবাড়ীয়া সড়কে গত ২৮ জুন দিনগত সন্ধ্যারাতে রাস্তায় বাবলা গাছ ফেলে ভয়াবহ ডাকাতি সংঘটিত হয়। ওই দিন সাধারণ পথচারী ঠিকাদার ও গরু ব্যবসায়ীদের দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ আনুমানিক ৩০ লাখের অধিক টাকা ও ১০-১২ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুট করে সংঘবদ্ধ ডাকাতদল। ওই ঘটনা প্রায় আড়াই মাস পার হলেও এখনও পর্যন্ত লুটের মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More