চুয়াডাঙ্গায় ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ আ.লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার চারটি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ৪টির মধ্যে তিনটি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যানদের প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী। একইভাবে একটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগের একাধিক নেতারা। ফলে, নির্বাচন হয়ে উঠেছে জমজমাট। এ নির্বাচনে কে জিতবে আর কে হারবে তার ফয়সালা হবে আগামী ২৬ ডিসেম্বর জনগণের ভোটপ্রদানের মাধ্যমে।
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আলুকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসলাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান আক্তাউর রহমান মুকুল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ, সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাড. আব্দুল মজিদ, জাতীয় পার্টির জুলফিকার আলী কলি ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আলিমুজ্জামান। এ ইউনিয়নে ভোটার সংখ্য ২২ হাজার ৬৭৩ জন।
কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিকের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন টাইগার, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল রানা, আওয়ামী যুবলীগ সমর্থক আক্তার হোসেন রনি, সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আজিজুল হক। এ ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২৬ হাজার ৮৭১ জন।
পদ্মবিলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সদর উপজেলা কমিটির সদস্য আবু তাহের বিশ্বাসের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. আলম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা সেলিম মল্লিক, বিএনপির সমর্থক আতিয়ার রহমান ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ওমর ফারুক। এ ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ১৬ হাজার ৪০৩ জন। মোমিনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষকলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দারের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন রতন এবং ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী একরামুল হক। এ ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ১২ হাজার ৪৫৭ জন।
আলুকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইসলাম উদ্দিন বলেন, নির্বাচনে কোন সমস্যা হচ্ছে না। তবে, প্রতিপক্ষ প্রার্থীরা ভোটের মাঠে টাকা ঝড়াচ্ছেন। পদ্মবিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস বলেন, আগামী ৭ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পর নির্বাচনে মাঠে নির্বাচনে জোর লড়াই শুরু হবে।
কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আহম্মেদ হাসানুজ্জামান মানিক বলেন, নির্বাচনী কার্যক্রম মোটামুটি চলছে। প্রতীক পাওয়ার আরো জোরোসরে প্রচারণা শুরু হবে
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. কামরুল হাসান বলেন, চারটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগামী ৬ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন এবং ৭ ডিসেম্বর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর পদ্মবিলা ইউনিয়নে ইভিএম ও বাকি তিনটি ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More