চুয়াডাঙ্গায় বৃহস্পতিবারের পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

অবৈধ যান বন্ধে ফলপ্রসু আলোচনা : বাস মিনি বাস মালিক গ্রুপের বিজ্ঞপ্তি

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার ৫টি আঞ্চলিক সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহুত ধর্মঘট স্থগিত করেছে জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের এমপি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দারের উপস্থিতিতে প্রশাসন ও ঐক্য পরিষদের মধ্যে বৈঠক শেষে রাতে ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়া হয়। মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক হাজি মো. আবুল কালাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ফলপ্রসু আলোচনার প্রেক্ষিতে আহুত ধর্মঘট স্থগিত করা হলো। সড়কপথে সব ধরনের অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে গত সোমবার সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ জেলার আঞ্চলিক পাঁচটি সড়ক ও খুলনা পথে ৯ সেপ্টেম্বর থেকে অনির্দিষ্টকালের বাস ধর্মঘটের ডাক দেয়। ধর্মঘটের সমর্থনে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় শহীদ হাসান চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচিও পালন করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক- শ্রমিক ঐক্য পরিষদ জেলার ৫টি আঞ্চলিক সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধের দাবিতে গত ৩০ আগস্ট জেলা প্রশাসকের নিকট স্মারকলিপি পেশ করে। ৬ সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী ৮ সেপ্টেম্বর বুধবারের মধ্যে দাবি পূরণ না হলে ৯ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টা থেকে জেলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট শুরু হবে। ১২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এ সমস্যার সামাধান না হলে ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকাসহ দূরপাল্লার সকল যাত্রীবাহি বাসও বন্ধ করে দেয়া হবে।
এমন অবস্থায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মো. নজরুল ইসলাম সরকারের সভাপতিত্বে আঞ্চলিক পরিবহন কমিটির (আরটিসি) সভা অনুষ্ঠিত হয়। সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা বাস ধর্মঘটকে কেন্দ্র করেই জরুরি এই সভা আহ্বান করা হয়। সভায় আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার। অন্যান্যের মধ্যে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাত রহমান, সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি আলী রেজা সজল, সাধারণ সম্পাদক একেএম মঈন উদ্দিন মুক্তা, জেলা বাস-মিনিবার মালিক গ্রুপের সভাপতি সালাউদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বদর খান, জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হাসান জোয়ার্দ্দার টোকন, জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি এম জেনারেল ইসলাম, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন ম-ল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় পরিবহন নেতারা তাদের দাবি দাওয়া তুলে ধরেন। একপর্যায়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে জেলার মেহেরপুর-ঝিনাইদহ ভায়া চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেন। কর্মকর্তারা বলেন, পরীক্ষামূলকভাবে সফল হলে পরবর্তী সময়ে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হবে। সাংসদ এই প্রস্তাবকে সমর্থন করে প্রশাসনকে ১৫ দিন পরীক্ষামূলক সময়ে বেঁধে দেন। বিষয়টি ঐক্য পরিষদের নেতারা মেনে নেন এবং বাস ধর্মঘট থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।
ঐক্য পরিষদের পক্ষে রাতে গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে এবং শহরের মাইকিং করে বাস ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়া হয়। জেলা বাস মিনিবাস মালিক গ্রুপ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, জেলা প্রশাসসের সম্মেলন কক্ষে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সাথে অবৈধ যান বন্ধের বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। ফলে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে যে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছিলো তা স্থগিত করা হয়েছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More