চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাকে আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিলো ভারত সরকার

ভাড়া বাবদ নির্ধারিত টাকা পরিশোধের মাধ্যমে সেবা গ্রহণ করা যাবে
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাকে উপহার হিসেবে দেড় কোটি টাকা মূল্যের অত্যাধুনিক আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স দিয়েছে ভারত সরকার। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে এটি হস্তান্তর করা হয়। চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ও পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকনের হাতে চাবি তুলে দেন ভারতের সহকারী হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী।
অত্যাধুনিক এ আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্সটি পৌর এলাকার নাগরিকসহ জেলার জনসাধারণের স্বাস্থসেবায় নিয়োজিত থাকবে। ভাড়া বাবদ নির্ধারিত টাকা পরিশোধের মাধ্যমে এই লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স সেবা গ্রহণ করা যাবে বলে পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে।
হস্তান্তর অনুষ্ঠানে রাজশাহীতে নিযুক্ত ভারতের সহকারী হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী বলেন, বাংলাদেশের সাথে ভারতের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। আমাদের হৃদয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের বন্ধুত্ব। আমরা বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান করি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারত সহযোগিতা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাকে ভারত সরকারের উপহার দেড় কোটি টাকা মূল্যের অত্যাধুনিক আইসিইউ অ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ওই মন্তব্য করেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাকে অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিতে পেরে বাংলাদেশ এবং ভারতের বন্ধু প্রতীম দেশের এ বন্ধন সুদৃঢ় ও দীর্ঘস্থায়ী হবে। ২০২১ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশ সফরের সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ১০৯টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স সরবরাহের ঘোষণা করেছিলেন। ১০৯টি লাইফ সাপোর্ট অ্যাম্বুলেন্স সরবরাহের সামগ্রিক কর্মসূচীর একটি অংশ এই অ্যাম্বুলেন্স। লাইফ সাপোর্ট সম্বলিত এই অ্যাম্বুলেন্সে রয়েছে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের সমন্বয়ে অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা। রোগীদের মানসম্পন্ন জরুরী সেবা এবং ট্রমা লাইফ সাপোর্ট ও প্রাথমিক চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে অ্যাম্বুলেন্সটি। তিনি আরও বলেন, করোনাকালীন সময় থেকে বাংলাদেশের পাশে রয়েছে ভারত। করোনার টিকা দিয়ে সহযোগিতা করেছে। ভবিষ্যতেও যে কোনো ধরনের দুর্যোগে সহযোগিতা করবে।
ভারতের সহকারী হাই কমিশনার বলেন, সীমান্তে হত্যাকা- আমরা চাই না। কিন্তু কিছু চোরাকারবারী রাতের অন্ধকারে চোরাচালান করে। কোনো ভাল মানুষ তো ওই কাজ করেন না। তাদের প্রতিহত করতে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনী অত্যন্ত তৎপর।
অনুষ্ঠানে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বলেন, আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। ভারতে গিয়ে বাঙালীরা প্রশিক্ষণ নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে আমাদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে মিত্রবাহিনী পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করেছে। স্মরণার্থীদের ভারতই আশ্রয় দিয়েছে। তাছাড়া মহামারি করোনাসহ যে কোনো দুঃসময়ে ভারত আমাদের পাশে থেকেছে। আশা করি ভবিষ্যতেও থাকবে।
পরে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ও পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকনের হাতে অ্যাম্বুলেন্সের চাবি হস্তান্তর করেন সহকারী হাই কমিশনার সঞ্জীব কুমার ভাটী। এ উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন। ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান চাঁদের সঞ্চালনায় হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মুহা. শামসুজ্জোহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন, ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাফিজুর রহমান মাফিসহ পরিষদের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী ও কাউন্সিলরবৃন্দ।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More