ঠাণ্ডাজনিত রোগে প্রতিদিন চিকিৎসা নিচ্ছে ২ হাজার

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরে আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে শিশুসহ সব বয়সের মানুষ এখন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। অসুস্থ হয়ে অনেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন মেহেরপুরের গাংনী হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে। বিষয়টি স্বীকার করে চিকিৎসকরা চিকিৎসা গ্রহণের পাশাপাশি সাবধানতা অবলম্বনের পরামর্শ দেন।
গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন দেড় হাজার থেকে ২ হাজার মানুষ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়ে থাকেন। আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে কখনো ঠাণ্ডা, কখনো গরম। দিনে গরম আর রাতে ঘুমোনোর সময় ঘরে বৈদ্যুতিক পাখা চালানোর কারণে ঠা-া লেগে শরীরে তাপমাত্রার হেরফের হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে অসুস্থতা ও জ্বরের স্বাভাবিক কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর বাইরের বিভিন্ন খাবার খাওয়ায় ডায়রিয়া ও পানিবাহিত রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটছে। অসুস্থদের মধ্যে শিশু ও বয়স্কদের সংখ্যা বেশি।
সরেজমিনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে গিয়ে দেখা যায়, আউটডোরে রোগীদের দীর্ঘ সারি। টিকিট রেজিস্টারে দেখা গেছে, প্রতিদিন গড়ে ২ হাজার রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে ওয়ার্ডে ৭৫ জন ভর্তি রয়েছেন। পা ফেলার জায়গা নেই।
মেঝে ও সিঁড়িতেও রোগীরা ভর্তি রয়েছেন। চিকিৎসাসেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্স। রোগীদের অধিকাংশই জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত। আর শিশুরা নিউমোনিয়াতে আক্রান্ত।
জোড়পুকুরিয়া গ্রামের কাজল জানান, তিনি তার ছেলে হামিমকে (২) নিয়ে তিন দিন ধরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন। ছেলে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। প্রথমে হালকা জ্বর হওয়ায় স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নেন। পরে রোগীর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। পরীক্ষা করে ধরা পড়ে হামিম নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত।
করমদী গ্রামের গৃহবধূ লাবনী তার মেয়ে ছয় মাস বয়সী আপিয়াকে নিয়ে ৭ দিন ধরে ভর্তি আছেন। আরও ৫ দিন থাকতে হবে বলে পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক। এছাড়াও রোগী আরাফাত জানান, তিনি জ্বর ও ডায়রিয়াতে আক্রান্ত হয়ে দুদিন থেকে ভর্তি রয়েছেন।
হাসপাতালের চিকিৎসক এমকে রেজা জানান, বর্তমান আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে জ্বর, কাশি আর ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীরা চিকিৎসা নিতে আসছেন। অনেকেই আউটডোরে পরামর্শ নিয়ে বাড়ি ফিরছেন। আর যে রোগীর অবস্থা একটু সংকটাপন্ন তাকে ভর্তি রাখা হচ্ছে। রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোনো ওষুধ সংকট নেই।
গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মর্কর্তা রাশেদুল হাসান শাওন জানান, আবহাওয়ার পালা বদলে বিভিন্ন রোগজীবাণুও সক্রিয় হয়ে ওঠে। বয়স্কদের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা কম থাকায় তাদের শরীরে পরিবর্তন বিশেষ ছাপ ফেলে। সেক্ষেত্রে সবাইকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More