দামুড়হুদার জুড়ানপুর ইউপি’র ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বর পদে মঈনুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত

 

স্টাফ রিপোর্টার : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার জুড়ানপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮ নং ওয়ার্ডের ( মজলিশপুর ও গোপিনাথপুর) মেম্বর পদে মঈনুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এই ওয়ার্ডে মেম্বর পদে অপর প্রতিদ্বন্দ্বী এবং বর্তমান মেম্বর রুহুল আমীনের মনোনয়ন বাতিল ঘোষিত হওয়ায় জুড়ানপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২০২১-এর রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ মঈনুলকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত ঘোষণা করেছেন।
মঈনুল ইসলাম জুড়ানপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি । এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি প্রথম বারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নাম লেখান এবং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হন। মঈনুলের নির্বাচনী প্রতীক মোরগ।
দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী ১১ নভেম্বর এই উপজেলার চারটি ইউনিয়নে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে জুড়ানপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য পদে মঈনুল ইসলাম ও রুহুল আমীন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। মনোনয়নপত্র বাছাইকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ মেম্বর পদপ্রার্থী রুহুল আমীনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। রুহুল আমীন প্রার্থীতা বহালের জন্য আবেদন করলেও আপীল বোর্ড তা নাকোচ করে দেন । এর মধ্যদিয়ে মঈনুল হোসেনের জয়ের পথ পরিস্কার হয়ে যায়।
মঈনুল ইসলাম এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন,‘ এলাকার মানুষের দোয়া ও ভালবাসায় আমি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছি। আগামী দিনগুলোতে ওয়ার্ডের মানুষের সঙ্গে পরামর্শ করে এলাকার উন্নয়ন করা হবে।’
চুয়াডাঙ্গা জেলা নির্বাচন অফিসার তারেক আহমেমদ বলেন, ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী রুহুল আমীনের নামে ৪টি মামলায় ৩ বছর ৩ মাস জেল ও ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ আছে। কাগজপত্র পরীক্ষার-নিরীক্ষার আইনগত যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More