বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামক স্বাধীন রাষ্ট্র পেতাম না

চুয়াডাঙ্গায় মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনাসভায় প্রফেসর ডা. মেহেদী

স্টাফ রিপোর্টার: নানা কর্মস‚চির মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করেছেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আ.লীগের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডা. মাহবুব হোসেন মেহেদী। গতকাল শনিবার দিবসটি উপলক্ষে সকাল ৬টায় চুয়াডাঙ্গা শহীদ হাসান চত্বরে শহীদ স্মৃতি স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর সকাল ৮টায় চুয়াডাঙ্গা পুরাতন স্টেডিয়ামে সমাবেশ ও কুচকাওয়াজে অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন। বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরের ডিসি সাহিত্য মঞ্চে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অংশগ্রহণ করেন এবং সংবর্ধিত হন। বিকেল সাড়ে পাঁচটায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মোড়ের বনলতা ভবনে এক আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. মেহেদী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা বাংলাদেশ নামক স্বাধীন রাষ্ট্র পেতাম না। এ সময় তিনি বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরেন। শহীদদের আদর্শ বাস্তবায়ন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও শোষনহীন সমাজ এবং সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আমাদের সবার উচিত দেশের ইতিহাস জানা। বর্তমান তরুণ ও নতুন প্রজন্মের অনেকেই আমাদের গৌরবময় সোনালি ইতিহাস ভালো করে জানে না। সবারই উচিত মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশকে ভালোবাসা, দেশের জন্য কাজ করা। দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের ফসল এ স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ। মুক্তিযুদ্ধ শুধু আমাদের বিজয়ের ইতিহাস নয়, আমাদের দেশপ্রেমের অনুপ্রেরণা যোগায় এবং আমাদেরকে উজ্জীবিত করে। দেশ বিনির্মাণের জন্য দরকার আমাদের সর্বোচ্চ ত্যাগ দিয়ে স্ব স্ব অবস্থান থেকে কাজ করা। তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনার জন্ম না হলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের কাজ জাতি চোখে দেখতো না। শেখ হাসিনার জন্মের সফলতা ও সার্থকতা কর্মের মধ্য দিয়ে। আলোচনাসভায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চুয়াডাঙ্গা জেলা ইউনিট কমান্ডের সাবেক জেলা কমান্ডার আবু হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আ.লীগের সাবেক যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. শফিকুল ইসলাম শফি, জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা জেলা কৃষকলীগের সহসভাপতি আক্তারুজ্জামান, আইন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা কৃষকলীগের আহ্বায়ক আব্দুল মতিন দুদু, যুগ্ম আহ্বায়ক ইলতুতমিশ আলো, জেলা কৃষকলীগের দফতর সম্পাদক রাকিব আহমেদ জনি, সদর উপজেলা ¯ে^চ্ছাসেবকলীগের তানভীর আহমেদ জনি, আ.লীগ নেতা কামাল হোসেন, পৌর ছাত্রলীগের ময়ন হোসেন প্রমুখ। আলোচনা সভাটি পরিচালনা করেন সাবেক জেলা ছাত্রলীগ নেতা হাসানুজজ্জামান কিরণ। এ সময় আওয়ামী লীগ, ¯ে^চ্ছাসেবকলীগ, কৃষকলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More