বাংলাদেশ চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশন নির্বাচন ১৮ মে

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোটযুদ্ধে লড়ছেন ৪ প্রার্থী
দর্শনা অফিস: বাংলাদেশ চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৮ মে। এবারের নির্বাচন হবে মোবারকগঞ্জ চিনিকলে। নির্বাচনকে সামনে রেখে সরগরম শুধু ফেডারেশন এলাকায় নয়। এ নির্বাচনের গরম বাতাস দেশের সবকটি চিনিকলেই। দেশের ৬টি চিনিকল বন্ধ হওয়ায় এবারের নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা কমেছে অনেক। যে কারণে এ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে ৯টি চিনিকলের মধ্যে কেরুজ, মোবারকগঞ্জ, ফরিদপুর, নর্থবেঙ্গল, নাটোর, রাজশাহী, জয়পুরহাট, জিল বাংলা, ঠাকুরগাঁও চিনিকল ও রেইন উইক জঙ্গেস্বর। ফেডারেশন নির্বাচন মানেই নেতাদের নেতা নির্ধারণকরণ। তাই শ্রমিক নেতাদের দ্বারে দ্বারেই ছুটছেন নেতারাই। এ নির্বাচনকে সামনে রেখে দর্শনা কেরুজ ট্রেনিং কমপ্লেক্স ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে দেশের ৯টি চিনিকলের শ্রমিক নেতাদের বৈঠক। এ বৈঠকে যোগ দিতে আগেরদিন থেকেই দেশের বিভিন্ন চিনিকল এলাকার নির্বাচিত নেতারা আসতে শুরু করেন কেরুজ চিনিকল এলাকায়। কেউ কেউ এসেছিলেন ট্রেন বা বাসযোগে, আবারো কাউকে কাউকে দেখা গেছে প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস এমনটি সংশ্লিষ্ট চিনিকলের জিপগাড়িতে চড়ে।
এদিকে ফেডারেশনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যেও ছিলো তুমুল ব্যস্ততা। আয়োজনের যেমন ছিলো না ঘাটতি, তেমনি আপ্যায়নেও কমতি করা হয়নি। গতকাল শনিবার সকাল থেকেই কেরুজ ট্রেনিং কমপ্লেক্স ভবনে একে একে সমবেত হতে থাকেন শ্রমিক নেতৃবৃন্দরা। দুপুর মধ্যহ্নভোজের পর শুরু হয় আলোচনা পর্ব। এ পবের্র সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ চিনিকল ফেডারেশনের সভাপতি মাসুদুর রহমান। আলোচনা করেন, রেইন উইক জঙ্গেশ্বরের শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি সেলিম রেজা রিপন, সাধারণ সম্পাদক জাফর ইকবাল, রাজশাহী চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আফাজ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, জয়পুরহাট চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আলী আক্তার, সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব রুমেল, নাটোর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মুনছুর আলী, জ্বিল বাংলা চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি লিচু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল হক, মোবারকগঞ্জ চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম রসুল, সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, ফরিদপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আব্বাস আলী বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক কাজল বসু প্রমুখ।
সভায় উপস্থিত শ্রমিক নেতৃবৃন্দ সর্বসম্মতিক্রমে মাসুদুর রহমানের গুণগান করে বলেন এ ধরণের যোগ্য ব্যক্তিকেই ফেডারেশনের সভাপতি নির্বাচিত করা উচিত বারবার। মাসুদুর রহমান শ্রমিকের ন্যায্য অধিকারে কাজ করেছেন নিরন্তরভাবে। তাই এবারের নির্বাচনেও তাকে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করতে সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো। কেরু শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ সবুজ ও সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমানের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন কেরুজ জামে মসজিদের পেশইমাম শামসুজ্জোহা। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কেরুজ শ্রমিক ইউনিয়নের সহসম্পাদক খবির উদ্দিন, অর্থ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মফিজুল ইসলাম প্রমুখ। আগামী ১৮ মে মোবারকগঞ্জ চিনিকলে ফেডারেশনের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও আগের দিন একই স্থানে অনুষ্ঠিত হবে কাউন্সিল অধিবেশন। এবারের নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মাঠে রয়েছেন বর্তমান সভাপতি, কেরুজ শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের বারবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান ও নর্থবেঙ্গল সুগার মিল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি শহিদুল ইসলাম। সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী পদে রয়েছেন জ্বিল বাংলা চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল হক ও নাটোর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ। তবে ৯টি চিনিকলের মধ্যে ৭টি চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ নেতৃবৃন্দ ফেডারেশনের পুনরায় সভাপতি হিসেবে মাসুদুর রহমানকে সমর্থন করায় এ পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শেষ অবধি মাঠে থাকছেন কিনা তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়। তবে ভোটের দিন যতই এগিয়ে আসবে, ততই পরিষ্কার হবে শেষ অবধি কে কে কোন কোন পদে প্রার্থী হচ্ছেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More