মিজানুর সভাপতি আ. হাকিম ম্যানেজার নির্বাচিত

হাসমত আলী: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে দামুড়হুদার কুড়ুলগাছি আদর্শ কৃষক সমবায় সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থী কুড়–লগাছি ইউনিয়ন আ.লীগ নেতা মো. মিজানুর রহমান ও বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আব্দুল হাকিম ম্যানেজার (সম্পাদক) নির্বাচিত হয়েছেন। ৩ বছর পর গতকাল শুক্রবার সমিতির কার্যালয় ভোটকেন্দ্রে উৎসবের মধ্যদিয়ে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন সমিতির অন্তর্গত ভোটাররা। সভাপতি পদে মিজানুর রহমান (চেয়ার) ২৮৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইদ্রিস আলী (ছাতা) পেয়েছেন ২৭২ ভোট। সহ-সভাপতি পদে আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থী মো. ফিরোজ উদ্দীন (তালাচাবি) ২৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আশরাফ আলী (হাতপাখা) ১৩৮ ভোট এবং অপরপ্রার্থী মো. আব্দুল হাকিম (হাঁস) পেয়েছেন ১৩৭ ভোট। ম্যানেজার (সম্পাদক) পদে আব্দুল হাকিম (কলম) ২০৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. মাজাহারুল ইসলাম (হরিণ) পেয়েছেন ১৮৬ ভোট এবং অপর প্রার্থী আশরাফুল হক জাকির (মোরগ) পেয়েছেন ১৬৬ ভোট। নির্বাহী সদস্য পদে ১নং ওয়ার্ডের আব্দুস সামাদ (বালতি) ৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. আফাজ উদ্দীন (ফুটবল) পেয়েছেন ২৭ ভোট। ২নং ওয়ার্ডে মো. আব্দুল গনি (বিনা প্রতিদ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন)। ৩নং ওয়ার্ডে মো. সাজেদুর রহমান (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ৪নং ওয়ার্ডে মো. আব্দুল মান্নান (ফুটবল) ৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাশেম আলী (মই) ৩০ ভোট পেয়েছেন। ৫নং ওয়ার্ডে মো. শহিদুল ইসলাম (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন)। ৬নং ওয়ার্ডে রমজান আলী (ফুটবল) ৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাসানুল কাদির (বালতি) ২৪ ভোট পেয়েছেন। ৭নং ওয়ার্ডে মো. রবিউল হক (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন)। ৮নং ওয়ার্ডে মো. মতিয়ার রহমান (মই) ৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. শহিদুল ইসলাম (ফুটবল) ২৫ ভোট পেয়েছেন। ৯নং ওয়ার্ডে মো. আবুল কাশেম (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন)।
সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে কুড়–লগাছি আদর্শ কৃষক সমবায় সমিতি লি. ও দামুড়হুদা উপজেলা সমবায় অফিসার মো. হারুন অর রশিদ, সহকারী নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মোঃ আব্দুর রাশেদ (পরিদর্শক, জেলা সমবায় কার্যালয়, চুয়াডাঙ্গা) ও মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন (পরিদর্শক, বিআরডিবি-দামুড়হুদা)। মোট ৬৩৮টি ভোটের মধ্যে পোল হয়েছে ৫৭৫টি এবং বাতিল হয় ৬২টি ভোট। ভোটগ্রহণের শুরু থেকেই ভোটারদের সরব উপস্থিতি আর সমর্থকদের স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে গোটা সমিতির বাজার এলাকা। আওয়াজ তুলে পছন্দের প্রার্থীর মার্কায় সিল মারতে ভোটারদের উৎসাহ প্রদানের দৃশ্য দেখা গেছে দিনভর। শেষ পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই সম্পন্ন হয় ৩ বছর অপেক্ষার সেই কাক্সিক্ষত নেতৃত্ব নির্বাচন। ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর নব-নির্বাচিতদের ফুলের মালা দিয়ে বরণ করেন অনেকেই। ভোটার ও সমর্থকরা একে অন্যের মুখে মিষ্টি তুলে দিয়ে প্রকাশ করেন বিজয় উল্লাস।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More