মেহেরপুরে করোনাভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত ৮ জন

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুরে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮জন। এতে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৭২ শতাংশ। এ নিয়ে জেলায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩৮ জনে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৬৩, গাংনী উপজেলায় ৫৬ এবং মুজিবনগর উপজেলায় ১৯ জন। এছাড়াও জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোন মৃত্যু সংবাদ পাওয়া যায়নি। জেলায় মোট মুত্যু সংখ্যা ১৭৭ জন। মঙ্গলবার রাতে মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. নাসির উদ্দিন এ সব তথ্য জানান।
সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১১৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এরমধ্যে মেহেরপুর সদর উপজেলায় ৪ জন, গাংনী উপজেলায় ৩ জন ও মুজিবনগর উপজেলায় ১ জন রয়েছেন। সিভিল সার্জন ডা. মো. নাসির উদ্দিন আরো জানান, জেলায় এখনও পর্যন্ত ৪ হাজার ২৫০ জন সুস্থ হয়েছেন।
মেহেরপুরে পুলিশি অভিযানে মাদকসহ স্বামী-স্ত্রী ও কন্যা আটক
মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর ডিবি পুলিশের অভিযানে ফেন্সিডিল, অ্যালাকোরেক্স ও ফিডিডাফ সিরাপসহ একই পরিবারের তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন- আসমা খাতুন (৪৫), আসমা খাতুনের স্বামী ইউসুপ আলী (৫০) ও তার মেয়ে রুপা খাতুন। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে মেহেরপুর ডিবি পুলিশের এস আই বিশ্বজিৎয়ের নেতৃত্বে এস আই অজয় কুমার কুন্ডু ও এস আই মো. হাবিবুর রহমানসহ ডিবি পুলিশের একটি দল মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে শহরের বাসস্ট্যান্ডপাড়া থেকে তাদের আটক করে।
মেহেরপুর ডিবি পুলিশের ওসি তরিকুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মেহেরপুর ডিবি পুলিশের এস আই বিশ্বজিৎয়ের নেতৃত্বে মেহেরপুর শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় আটককৃতদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২ বোতল ফেন্সিডিল, ৭ বোতল অ্যালাকোরেক্স সিরাপ, এক বোতল ফিডিডাফ সিরাপ উদ্ধার করা হয়। আটককৃত মাদক দ্রবের মূল্য প্রায় ৪০ হাজার টাকা। তিনি আরও জানান, এসময় মাদক বিক্রেতা আসমা খাতুন, আসমা খাতুনের স্বামী ইউসুফ আলী ও তার মেয়ে রুপা খাতুনকে আটত করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে একাধিক মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে নিয়মিত মামলা রুজু করার প্রক্রিয়া চলছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More