চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে জিয়াউর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী পালিত

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদত বার্ষিকীতে নানা কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠন। গতকাল রোববার চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুরসহ সারাদেশে দিনব্যাপী আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে কর্মসূচি শুরু করা হয়। পরে আলোচনাসভা, দোয়া ও খাবার বিতরণের মধ্যদিয়ে কর্মসূচি সম্পন্ন করা হয়। আওয়ামী লীগ অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে এ দেশের উদার রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, তারাই (আওয়ামী লীগ) আজকে সাম্প্রদায়িকতা উগ্রবাদের জন্ম দিচ্ছে। ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে শুধু বিএনপি নয়, গোটা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’ মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ এই দেশকে নির্মাণের জন্য কখনই কোনো শুভ কাজ করেনি। রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে তার মাজার জিয়ারত শেষে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি মহাসচিব বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান একজন ক্ষণজন্মা নেতা। জাতির সবচেয়ে সংকটময় মুহূর্তে তিনি সামনে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং নেতৃত্ব দিয়েছেন। ১৯৭১ সালে তিনি সমগ্র জাতিকে যুদ্ধের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে বলেছিলেন এবং নিজে রণাঙ্গনে যুদ্ধ করেছিলেন। এর মধ্যদিয়ে তারা দেশ স্বাধীন করেছিলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ১৯৭৫ সালে একদলীয় শাসনব্যবস্থা থেকে তিনি জাতিকে মুক্ত করেছেন। জাতিকে তিনি বহুদলীয় গণতন্ত্র উপহার দিয়েছিলেন। জাতির মধ্যে নতুন আশার সঞ্চার করেছিলেন। একটি বিভক্ত জাতিকে তিনি একত্রিত করেছিলেন। নতুন বিপ্লব শুরু করেছিলেন একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশের জন্য।
তিনি বলেন, জিয়া মাত্র সাড়ে তিন বছরে বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করেছিলেন। আমরা আজকের এইদিনে তাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি।
চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সদস্য শহিদুল ইসলাম রতন এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ৬টায় দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলনসহ নেতাকর্মীরা কালো ব্যাজ ধারণ করেন। বিকেলে দোয়া অনুষ্ঠান ও খাবার বিতরণ করা হয়। দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্মআহ্বায়ক অ্যাড. ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, যুগ্মআহ্বায়ক খন্দকার আব্দুল জব্বার সোনা, জেলা বিএনপির সদস্য এম জেনারেল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, আবু জাফর মণ্টু, বিএনপি নেতা রেজাউল করিম মুকুট, অ্যাড. মইনুল, মনিরুজ্জামান মনি, আক্তারুজ্জামান, জেলা যুবদলের সহসভাপতি তৌফিকুজ্জামান তৌফিক, যুগ্মসম্পাদক রবিউল মল্লিক, সহসাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সুমন, যুবদল নেতা আজাদুল ইসলাম আজাদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহসভাপতি শরিফুল ইসলাম বিলাস, সাধারণ সম্পাদক এমএ তালহা, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক মঞ্জুরুল জাহিদ, সহসভাপতি ইলিয়াস, হোসেন, যুগ্মসম্পাদক আরিফুল ইসলাম রিবন, সহসাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা, আলী আশরাফ রনি, সহসাংগঠনিক সম্পাদক তোহফাতুর রিংকু, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান হাবিব মামুন, যুগ্ম-সম্পাদক জুয়েল মাহমুদ, সাজিদ হাসান মালিক সজিব, সহসভাপতি শেখ শাহবাজ সুজন, আশিকুর রহমান আশিক, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ইখলাস মুন রায়হান, সহদফতর সম্পাদক সোহেল রানা, বিএনপি নেতা শফিকুল কবীর জুয়েল, জেলা ওলামাদলের আহ্বায়ক ফজলুর রহমান, পৌর যুবদলের যুগ্মআহ্বায়ক আতিকুর রহমান বাচ্চু, স্বেচ্ছাসেবক দলের আতিকুর রহমান বিদ্যুত, পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রানা হামিদ, সদর থানা ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক আল বেলাল ও ছাত্রদল নেতা খালেকুর রহমান বাধন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিএনপি নেতা অ্যাড. শামিম রেজা ডালিম।
অপরদিকে, গতকাল রোববার বেলা ১১টার দিকে বড় বাজারে অবস্থিত রজব আলী সুপার মার্কেটে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহাফিল অনুষ্ঠিত হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির ব্যানারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সদস্য সিরাজুল ইসলাম মনি। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির সদস্য শরীফুজ্জামান শরীফ। জেলা জাসাসের সাধারণ সম্পাদক সেলিমুল হাবিব সেলিমের উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি আরশেদ আলী কালু, জেলা বিএনপির সদস্য আবু বক্কর সিদ্দিক আবু, সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক প্রচার সম্পাদক মুন্সি আলাউদ্দিন, পৌর বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি ইনতাজ আলী, সহসভাপতি খাইরুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাবলু, পৌর বিএনপির সাবেক যুগ্মসম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, মহিলা নেত্রী পৌর কাউন্সিলর শেফালী খাতুন, জেলা স্বেচ্ছসেবক দলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম পিটু, জেলা যুবদললের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ মো. রাজিব খান, পৌর বিএনপির সাবেক দফতর সম্পাদক ইয়াছিন হাসান কাকন, পৌর বিএনপির নেতা নুর আব্বাস, বজলুর রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি হাফিজুল ইসলাম মুক্ত, বাড়াদী ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান তবারক হোসেন, আলুকদিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, মোমিনপুর ইউনিয়ন নেতা ও মেম্বার সানোয়ার হোসেন, হাসান মালিক, মাখালডাঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপির নেতা মহিবুল হক মাহবুব, শঙ্করচন্দ্রর ইউনিয়ন বিএনপি নেতা আব্দুল রাজ্জাক পচা, কতুবপুর ইউপি মেম্বার আমীর আলী, দামুড়হুদা উপজেলা বিএনপির নেতা জাকির হোসেন, আবুল কালাম, জেলা যুবদলের অর্থ সম্পাদক মমিনুল রহমান মমিন, পৌর যুবদলের যুগ্মআহবায়ক অপু মালিক, আশরাফুল হক রুবেল, মহসিন আলী, আব্দুর রশিদ, এসএম হাসান, শাহাজামাল, রুবেল হাসান, ইমন হাসান, তুহিন হাসান, মিঠু, জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি মতিউর রহমান মিশর, শাহাবুদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আমান উল্লাহ আমান, তানভির ইনায়েত জিতু, জীবন ইসলাম, আমীর হোসেন আমের, পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক কৌশিক আহমদ রানা, সদস্য সচিব মেহেদী হাসান, সরকারি কলেজ শাখার সদস্য সচিব সাইমুম সাইমুম,শাহারু, আরাফাত, রফিক প্রমুখ। আলোচনাসভা শেষে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া শেষে শহরের বিভিন্ন স্থানে খাবার বিতরণ করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদলের দফতর সম্পাদক মামুন-উর-রশিদ টনিক এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানান, চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবদলের উদ্যোগে দুপুরে শহরের বড় বাজার, একাডেমি মোড়, পুরাতন ঝিনাইদাহ বাসস্ট্যান্ড, কোর্টমোড়, কেদারগঞ্জ বাজারসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে গরিব দুঃখী মেহনতি ও পথচারীদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। খাবার বিতরণ শেষে বিকেল ৫টার দিকে ঝিনাইদহ বাসস্ট্যান্ডে দোয়া ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবদলের সভাপতি শরীফ উর জামান সিজার, সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রশিদ ঝন্টু, সিনিয়র সহসভাপতি আশরাফ বিশ্বাস মিল্টু, জেলা মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক আবু বকর সিদ্দিক বকুল, সহসভাপতি সোহেল আহাম্মেদ মালিক সুজন, তৌফিকুজ্জামান তৌফিক, আবুল কালাম আজাদ, শহিদ হোসেন লাড্ডু, আনিছুজ্জামান আনিছ, নাশির উদ্দীন খেদু, মাগরিবুর রহমান, আরিফুল ইসলাম আরিফ, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক হাজি রবিউল হক মল্লিক, বকুল হোসেন বকুল, সহসাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন আরিফ, হুসাইন মোহাম্মদ আমির, পিনু মুন্সি, সাইফুল ইসলাম সুমন, মোমিনুর রহমান মোমিন, আসান শেখ, সাইফুল ইসলাম মিঠু, মাহবুব হোসেন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক সুমন আলী, সহকোষাধ্যক্ষ অনিত হাসান মালিক, প্রচার সম্পাদক ইমরান হোসেন উজ্জ্বল, দফতর সম্পাদক মামুন-উর-রশিদ টনিক, সহদফতর সম্পাদক হাসান বিশ্বাস আশা, সাইদুর রহমান, সহসাহিত্য প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান টিটু, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. শাহিন আক্তার, সহআইন বিষয়ক সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত ফিরোজ, ক্রিড়া সম্পাদক আহনাফ শাহারিয়া সনি, সহক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক জাহিন শেখ, সহসমাজ ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক রুপম আজাদ টারজান, সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদ, সহপল্লী উন্নয়ন ও সমবায় সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান রানা, সহবন পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সুমন, মৎস্য ও পশু পালন বিষয়ক সম্পাদক সোহেল রানা টুটুল, সদস্য রাহাত হাসান মালিক রাজিব, বিপুল হোসেন হ্যাজি, সোলাইমান হক, আজিজুল হক, মাহবুবুর রহমান বাচ্চু, মাহফুজুর রহমান মিল্টন, সেলিম মেহফুজ মিল্টন, এমদাদুল হক এমদাদ, সাইফুল ইসলাম সেলিম, সজীব, ফারুক হোসেন, জালাল উদ্দীন জালাল, জালাল উদ্দীন লিটন, শিপন, শিপলু, ইখলাস, বিপ্লব হোসেন বিপ্লব, সরোয়ার হোসেন সরো, মাফুজুর রহমান মিল্টন, টুটুল শাহ, সোলাইমান হক উজ্জ্বল, সোহেল রানা, মিজানুর রহমান মিজান, হামিদ উদ্দীন রিপন, সুন্নত আলী, নজরুল ইসলাম, আবু জিহাদ, লতিফ, তাহের আলী প্রমুখ।
এদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে দোয়া ও খাবার বিতরণ করা হয়। জেলা ছাত্রদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের পরিচালনায় সহসভাপতি হুমায়ন কবির আকাশের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. শাহাজান খাঁন, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি ইন্তেয়ার হোসেন ইরোন, সহসভাপতি আশিকুর রহমান আশিক, মাছুদ মুক্ত, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক রোকনুজামান রোকন, মো. কায়েস, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক ওয়ালিদ হাসান, সুমন হোসেন, জেলা ছাত্রদলের যোগাযোগ সম্পাদক সৌরভ আরেফিন শাওন, আলমডাঙ্গা উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক মাবুদ হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক রিয়াদ হোসেন, দর্শনা পৌর ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক মেহেদী হাসান হৃদয়, মো. রানা, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক সাইফ মালিক রোমি, সোহাগ, দর্শনা সরকারি কলেজ ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক সোয়েব আক্তার, জেলা ছাত্রদলের সদস্য খালিদ হোসেন, আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক শুকুর আলী, সহসাংগঠনিক সম্পাদক ইকরামুল হক ইকরা, লতিফ, মাহাবুব, দর্শনা থানা ছাত্রদল যুগ্মআহবায়ক লিমন হোসেন, সজিব প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন কেদারগঞ্জ সিএন্ডবিপাড়া জামে মসজিদের পেশইমাম আব্দুল গণি। দোয়া অনুষ্ঠান শেষে শহরের রেল স্টেশন এবং শহীদ হাসান চত্বরসহ বিভিন্ন স্থানে গরিব ও দুস্থ অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দেয়া হয়।
চুয়াডাঙ্গা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক মুনজুরুল জাহিদ এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, দিনটি উপলক্ষে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে দোয়া ও খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির যুগ্মআহ্বায়ক অ্যাড. ওয়াহেদুজ্জামান বুলা। বিশেষ অতিথি ছিলেন যুগ্মআহ্বায়ক খন্দকার আব্দুল জব্বার সোনা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহসভাপতি শরিফুল ইসলাম বিলাস, সাধারণ সম্পাদক এমএ তালহা, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক মঞ্জুরুল জাহিদ, সহসভাপতি ইলিয়াস, হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আরিফুল ইসলাম রিবন, সহসাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা, আলী আশরাফ রনি, সহসাংগঠনিক সম্পাদক তোহফাতুর রিংকু, প্রকাশনা সম্পাদক জুয়েল রানা-২, স্বেচ্ছাসেবক দলের আতিকুর রহমান বিদ্যুত ও আশিক ইকবাল, জেলা ছাত্রদলের যুগ্মসম্পাদক জুয়েল মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহসান হাবিব মামুন, যুগ্মসম্পাদক সাজিদ হাসান মালিক সজিব, সহসভাপতি শেখ শাহবাজ সুজন, আশিকুর রহমান আশিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইখলাস মুন রায়হান, সহদফতর সম্পাদক সোহেল রানা, পৌর যুবদলের যুগ্মআহ্বায়ক আতিকুর রহমান বাচ্চু, পৌর ছাত্রদলের যুগ্মআহ্বায়ক রানা হামিদ, সদর থানা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আল বেলাল প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সভাপতি বিএনপি নেতা অ্যাড. শামিম রেজা ডালিম।
সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন যুবদল ও ছাত্রদলের উদ্যোগে বিকেলে পুরাতন ভান্ডারদহ তিন রাস্তার মোড়ে দোয়া ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব¡ করেন শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন যুবদলের নেতা টোকন মিয়া। অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা যুবদলের যুগ্মআহবায়ক হাসমত আলী সদস্য মওলা বক্স, জেলা তারেক জিয়া প্রজন্মদলের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জাান, সহপ্রচার সম্পাদক সজল আহম্মেদ, শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন যুবদল নেতা টুটুল হোসেন, ইমরান হোসেন, শিপন হোসেন, রফিকুল ইসলাম, শামিম হোসেন, আব্দুল মোমিন, খোকন হোসেন, বাবুল হোসেন, রোকন হোসেন, টিটু, রাব্বি ইসলাম, সিদ্দিক প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রদলের আইন বিষয়ক সম্পাদক রাফিক জামান। দোয়া পরিচালানা করেন মাও আজিম উদ্দিন। অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন শেখ ওরফে টিটন মেম্বার। অনুষ্ঠান শেষে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়।
আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায় আলোচনাসভা, দোয়া ও খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে জিয়াউর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। বিকেলে আলমডাঙ্গা শহরের আনন্দধাম রোডের ফায়ার সার্ভিসের পাশের চাতালে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন আলমডাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার। প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএপির সদস্য শরিফুজ্জামান শরীফ। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির সদস্য সিরাজুল ইসলাম মনি, জেলা বিএনপির সদস্য আবু বক্কর সিদ্দিক আবু, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক জায়েদ মো. রাজিব খান, জেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক চিৎলা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম বিপ্লব, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমান উল্লাহ আমান, জেলা ছাত্রদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মিশা, জেলা পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক কৌশিক আহম্মেদ রানা, সদস্য সচিব মাজেদুল ইসলাম মেহেদী, জেলা ছাত্রদলের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আল মাহমুদ সাদ্দাম, আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সভাপতি পৌর বিএনপি আনিসুর রহমান আনিছ। পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান পিন্টুর উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি আক্তার জোয়ার্দ্দার, কালিদাসপুর ইউপি সাবেক সভাপতি আইনাল হোসেন, জেহালা ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল হক রোকন, আলমডাঙ্গা পৌর যুবদলের সদস্য সচিব কনক মাহমুদ, জেলা ছাত্রদলের সহসম্পাদক সাদ্দাম, যুবদল নেতা পলাশ, সাজু, যুবদল নেতা খায়রুল আলম, রফিকুল ইসলাম, মোখলেসুর রহমান মুকুল, সুমন হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক জাহিদ হাসান শুভ, উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আল ইমরান রাসেল, যুগ্মআহবায়ক মাসুদ রানা, বকুল হোসেন, টগর, নাছিম, আশিক, ইয়াছিন আরাফাত, প্রান্ত, পৌর ছাত্রদলের আহ্বায়ক আতিক হাসানাত্ রিংকু, যুগ্মআহবায়ক রকিবুল ইসলাম রকি, হাবিবুর রহমান রাজু, ওহায়িদুর রহমান শুভ, রাজিব আহমেদ রাজু, হিমেল বিশ্বাস, জাকারিয়া ইসলাম শান্ত, সজিব আহমেদ, সবুজ আলী, আকাশ, পারভেজ, তানভির, মানিক, রতন, রিয়াজুল ইসলাম, সাকিলুজ্জামান, সোহেল রানা প্রমুখ। ওই দোয়া অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন আলমডাঙ্গা বণিক সমিতির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক হাফেজ মোহাম্মদ মোতালেব হোসেন।
মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের ৪০তম শাহাদত বার্ষিকীতে মেহেরপুর জেলা বিএনপি নানা কর্মসূচি পালন করে। গতকাল রোববার সকালে জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি মাসুদ অরুন। সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি আব্দুর রহমান ইলিয়াস হোসেন, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মারুফ আহমেদ বিজন, মুজিবনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আমিরুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সভাপতি জাহাঙ্গীর বিশ্বাস প্রমুখ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাবুদ্দিন মোল্লা, জেলা যুবদলের সভাপতি জাহিদুল হক জাহিদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আজমল হোসেন মিন্টু প্রমুখ।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More