আজ সংসদ অধিবেশন শুরু : কাল বাজেট প্রস্তাব উত্থাপন

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা মহামারির মধ্যে চলতি একাদশ জাতীয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশন শুরু হচ্ছে আজ বুধবার বিকাল ৫টায়। এটা বাজেট অধিবেশন। আগামীকাল বৃহস্পতিবার বেলা ৩টায় ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব সংসদে উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী জানান, যেহেতু দেশে এখনো করোনার সংক্রমণ চলছে, তাই গত কয়েকটি অধিবেশনের মতো এবারের বাজেট অধিবেশনও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পরিচালিত হবে। সংসদ সদস্যরা পালা করে অধিবেশনে যোগ দেবেন।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনা সংক্রমণের কারণে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে সংসদে সদস্যদের এক জনের আসনের মাঝে আরেক জনের দূরত্ব বজায় রাখার স্বার্থে করোনার মধ্যে অনুষ্ঠিত আগের অধিবেশনগুলোর মতো এবারও পালা করে অংশ নেবেন এমপিরা। বয়স্ক ও অসুস্থ এমপিদের এবারও অধিবেশনে যোগ দেওয়ার ক্ষেত্রে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। এমপিদের কে কোন কোন তারিখে অধিবেশনে যোগ দেবেন, সেটির একটি তালিকাও করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট এমপিদের এসএমএসের মাধ্যমে ইতিমধ্যে সেটি জানিয়েও দেওয়া হয়েছে।

অধিবেশনে যোগ দেয়ার আগে সংসদ সদস্যদের বাধ্যতামূলকভাবে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। পরীক্ষার জন্য সংসদ ভবনেই তারা নমুনা দিতে পারবেন। অধিবেশনে যোগ দেওয়ার আগে করোনার নেগেটিভ সনদ দেখিয়ে সংসদ ভবনে প্রবেশ করতে হবে সংসদ সদস্যদের। তবে সেই সনদ হতে হবে অধিবেশনে যোগ দেয়ার সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা পূর্বের। এছাড়া পালা করে যেই যেই তারিখে একজন এমপি অধিবেশনে যাবেন, একইভাবে ৭২ ঘণ্টা সময়ের মধ্যে করোনার নেগেটিভ সনদ থাকতে হবে। সেক্ষেত্রে পালা করে সংসদে গেলেও একজন এমপিকে তিন দিন পরপর করোনার পরীক্ষা করাতে হবে।

জানা গেছে, মহামারিকালের অন্য অধিবেশনগুলোর মতো এবারও অধিবেশনে সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও উপস্থিতি সীমিত হবে। সুচারুভাবে অধিবেশন পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয়সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারীর উপস্থিতি নিশ্চিত করা হবে। এমপিদের মতো কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও দায়িত্ব বণ্টন করে পালাক্রম নির্দিষ্ট করা হয়েছে। তাদেরও করোনার পরীক্ষা করাতে হবে। যাদের ফল নেগেটিভ আসবে, কেবল তারাই অধিবেশন চলাকালে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। এমপিদের মতো তাদেরও ৭২ ঘণ্টা আগের নেগেটিভ সনদ থাকতে হবে, অর্থাৎ তাদেরও তিন দিন পর পর করোনা পরীক্ষা করাতে হবে। কারও ফল পজিটিভ এলে তাকে দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখা হবে।

করোনার মধ্যে অনুষ্ঠিত গত কয়েকটি অধিবেশনে প্রবেশাধিকার ছিলো না গণমাধ্যমকর্মীদের। সংসদ টেলিভিশন দেখে সাংবাদিকদের অধিবেশনের সংবাদ সংগ্রহ করতে হয়েছে। গতবার বাজেট পেশের দিন বাজেটের কাগজপত্র নিতে সংসদ এলাকায় ঢুকতে পেরেছিলেন সাংবাদিকেরা। মিডিয়া সেন্টার থেকে বাজেটের কাগজপত্র সংগ্রহ করেছিলেন তারা। করোনার সংক্রমণ থাকায় এবারও আসন্ন বাজেট অধিবেশন সশরীরে কাভারেজের সুযোগ পাচ্ছেন না সাংবাদিকেরা। সংসদ টেলিভিশন দেখে অধিবেশনের সংবাদ সংগ্রহ করতে ইতিমধ্যে সংসদ সচিবালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে সাংবাদিকদের অনুরোধ করা হয়েছে। আর বাজেট উপস্থাপনের দিন সংসদ ভবনে সুভিনিরকক্ষ (টানেলের অভ্যন্তরে পূর্ব পাশে) থেকে সাংবাদিকদের মধ্যে বাজেট ডকুমেন্টস বিতরণ করা হবে।

সাধারণত বাজেট অধিবেশন দীর্ঘ হয়। তবে করোনা সংক্রমণের কারণে বাজেটসহ কয়েকটি অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হয়েছে। এবারও সম্পূরক বাজেট এবং নতুন অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনা সংক্ষিপ্ত হবে। সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে গতবারের মতো এবারের বাজেট অধিবেশনও সংক্ষিপ্ত হবে, চলতে পারে ১২ কার্যদিবস। করোনার প্রথম ঢেউয়ের মধ্যে গত বছর বাজেট অধিবেশন শেষ হয় মাত্র নয় কার্যদিবসের মধ্য দিয়ে, যা ছিল ইতিহাসের সংক্ষিপ্ততম বাজেট অধিবেশন।

অধিবেশনের আজ শুরুর দিন প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল মতিন খসরু ও আসলামুল হকের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপনের পর সেটির ওপর আলোচনা হবে। শোক প্রস্তাব গ্রহণের পর রেওয়াজ অনুযায়ী অধিবেশন মুলতবি হবে। আগামীকাল বেলা ৩টায় সংসদের বৈঠক বসতে পারে। এরপর শুক্র ও শনি দুই দিন বিরতি দিয়ে আবার রবিবার বসতে পারে অধিবেশন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More