এক দুর্ঘটনায় ৫ জনসহ চার জেলায় নিহত ৯

 

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকার কেরানীগঞ্জে মালবাহী লরির সঙ্গে ধাক্কা লেগে সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকসহ পাঁচ যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া রাজবাড়ী, নীলফামারী, লক্ষ্মীপুর ও চট্টগ্রামে আরো চারজন সড়কে প্রাণ হারিয়েছেন।  ঢাকার কেরানীগঞ্জে মালবাহী লরির সঙ্গে ধাক্কা লেগে সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকসহ পাঁচ যাত্রী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ১২টার দিকে উপজেলার ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের তেঘরিয়া এলাকার সার্ভিস রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন অটোচালক মো. তমাল (১৮), যাত্রী জোনায়েদ হোসেন জিহাদ (২৩), নাহিদ হোসেন ফাহিম (২১), মো. সামাদ (২১) ও মো. জনী (২৮)। এ ঘটনায় আহত আহাদ (২২) নামের এক যাত্রীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়েছে।

হাসাড়া হাইওয়ে পুলিশের ওসি আফজাল হোসেন জানান, লরিটি সার্ভিস রোড থেকে তেঘরিয়া রোডে ঘুরছিল, লরিটির গতি ছিল কম। এ সময় অটোচালক অতিরিক্ত গতিতে লরির পেছনের অংশে এসে ধাক্কা খায়। এতে পাঁচজন নিহত ও একজন আহত হয়। হতাহতরা সবাই অটোরিকশার যাত্রী। দুর্ঘটনার পর লরিটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন।

রাজবাড়ী: পাংশা উপজেলার তেলের পাম্প এলাকায় গতকাল শুক্রবার সকালে প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে মোটরসাইকেল আরোহী অমিত কুমার ভোলা নিহত হয়েছেন। ভোলা রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের জৌকুড়া এলাকার বাসিন্দা ও স্থানীয় একটি বালির চাতালে শ্রমিক ছিলেন। তিনি চন্দনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

নীলফামারী: নীলফামারী-সৈয়দপুর সড়কের কাজীরহাট এলাকায় রুহুল আমিন (২৮) নামের এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। তিনি উত্তরা ইপিজেডে কাজ করতেন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রুহুল আমিন দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, কারখানা ছুটির পর সিএনজিতে করে সৈয়দপুরের দিকে যাচ্ছিলেন রুহুল আমিন। ঘটনাস্থলে একটি শিশুকে বাঁচাতে গিয়ে সিএনজিটি হার্ড ব্রেক করে। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ওপর উল্টে যায় সিএনজিটি। এ সময় গুরুতর আহত হন রুহুল আমিন ও আরো একজন। উত্তরা ইপিজেডের ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রুহুল আমিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর-রামগঞ্জ সড়কের জামিরতলী এলাকায় পিকআপ ভ্যানচাপায় বাইসাইকেল আরোহী আবু তাহের (৫৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে পিকআপটি উল্টে পড়ে আরো সাতজন আহত হয়। নিহত তাহের সদর উপজেলার উত্তর হামছাদী ইউনিয়নের মির্জাপুর হাসন্দি গ্রামের বাসিন্দা। আহতরা পিকআপের শ্রমিক।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সীতাকু-ে লেগুনার সঙ্গে আরেকটি গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে লেগুনা চালক নিহত হয়েছেন। গতকাল দুপুর ২টায় উপজেলার বড়দারোগারহাট স্কেল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মেহেদী হাসান (২০) মিরসরাই উপজেলার হাম্মাদিয়া গ্রামের ওসমান গনির ছেলে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More