গাজীপুরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভয়াবহ আগুন

আগুনে দগ্ধ হয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ ৪ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার কালামপুর এলাকায় গতকাল সোমবার ভোরে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে একই স্থানে চারটি কলোনিতে ভয়াবহ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে দগ্ধ হয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ চার জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় দগ্ধ ও আহত হয়েছেন অন্তত ২০জন। আগুনে প্রায় ৫০টি কক্ষ এবং কক্ষে থাকা টাকাপয়সা, বিভিন্ন মালামাল পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
নিহতরা হচ্ছেন গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার সুন্দাইলপুর গ্রামের শামসুল হুদার ছেলে মিলন মিয়া (৩৬), তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার (৩০), একই থানার জরিপপুর গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে ফরহাদ হোসেন (৩৮) ও একই জেলার পলাশবাড়ী থানার জগন্নাথপুর গ্রামের ওসমান গনির ছেলে আব্দুল আউয়াল (৪০)। এরা সবাই স্থানীয় পোশাক কারখানার শ্রমিক ছিলেন।
ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়সূত্র জানায়, ওই উপজেলার কালামপুর পূর্বপাড়া এলাকায় নব্বই কলোনিতে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ ভয়াবহ অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। সম্প্রতি জনি মিয়ার কলোনির একটি কক্ষে সিলিন্ডারের গ্যাস লিকেজ দেখা দেয়। এতে কলোনির অন্য ভাড়াটিয়ারা গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার করতে নিষেধ করলেও সেটি মানা হয়নি। সোমবার ভোরে ওই কক্ষে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে আগুন মুহূর্তের মধ্যে কলোনির অন্য কক্ষে এবং পাশের জনি মিয়া, মো. আলী, লিটন মিয়া ও জাকির হোসেন কলোনিতে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় এসব কলোনিতে থাকা গার্মেন্টস শ্রমিকেরা তাদের শিশুসন্তানদের নিয়ে বাইরে চলে আসেন। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফায়ার সার্ভিস পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী হাফিজুল আমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পরে তিনি জানিয়েছেন, গাজীপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রত্যেক নিহতের পরিবারকে নগদ ২০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়েছে। এছাড়া অন্য ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে শুকনো খাবার, কম্বলসহ বিভিন্ন অনুদান দেয়া হবে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More