চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরসহ সারাদেশে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু

প্রথম দিনে অনুপস্থিত ২০ হাজার ৩৫৪ শিক্ষার্থী : অসদুপায় অবলম্বনের জন্য বহিষ্কার ২১

স্টাফ রিপোর্টার: এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিনে সারা দেশে ২০ হাজার ৩৫৪ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এর মধ্যে ৯টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ডে ১৫ হাজার ২৫৫ জন, মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডে ৫ হাজার ৯৯ জন। আর অসদুপায় অবলম্বনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে ২১ পরীক্ষার্থীকে। এদিকে পরীক্ষা শুরুর প্রথম দিনই এক ঘণ্টা চলার পর ভুল প্রশ্নপত্রের কারণে স্থগিত করা হয়েছে কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে পরিচালিত এইচএসসি (বিএমটি) বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা। গতকাল সন্ধ্যায় আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান তপন কুমার সরকারের স্বাক্ষর করা হিসাব থেকে এ তথ্য জানা যায়। গতকাল ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে বাংলা প্রথমপত্র (আবশ্যিক) বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ঢাকা বোর্ডে অনুপস্থিত ছিল ৩ হাজার ৫০৯ জন, চট্টগ্রাম বোর্ডে এক হাজার ৩৫৬ জন, রাজশাহী বোর্ডে ২ হাজার ১৫৮ জন, বরিশাল বোর্ডে ৯৬৭ জন, সিলেট বোর্ডে ৯৬৮ জন, দিনাজপুর বোর্ডে এক হাজার ৮১৮ জন, কুমিল্লা বোর্ডে এক হাজার ৭৬২ জন, ময়মনসিংহ বোর্ডে ৮১৩ জন, যশোর বোর্ডে ১ হাজার ৯০৪ জন। অসদুপায় অবলম্বনের জন্য বরিশাল বোর্ডে এক জন, কুমিল্লা বোর্ডে ৫ জন আর মাদরাসা বোর্ডে ১৫ জন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গায় উচ্চ মাধ্যমিক-এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা-২০২২ শান্তিপূর্ণভাবে শুরু হয়েছে। গতকাল রোববার বেলা ১১টায় মোট ২০টি কেন্দ্রে ৬ হাজার ৯১৭ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার কথা থাকলেও বাংলা ১মপত্রের পরীক্ষার প্রথম দিনে ৬ হাজার ৭৩২ জন উপস্থিত এবং ১৭৭ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এদিকে, গতকাল রোববার দুপুর ২টায় বিএম শাখার পরীক্ষা স্থগিত করে করেছে কারিগরি শিক্ষাবোর্ড। এইচএসসি ১১টি কেন্দ্রে মোট ৫ হাজার ৭৮১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫ হাজার ৬৪২ জন উপস্থিত ছিলেন এবং ১৩৯ জন অনুপস্থিত ছিলেন। ভোকেশনাল একটি কেন্দ্রে ৭৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭৫ জন উপস্থিত এবং ৪ জন অনুপস্থিত ছিলেন। বিএম ৫টি কেন্দ্রে ৭৪২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭২১ জন উপস্থিত এবং ২১ জন অনুপস্থিত ছিলেন। আলিম ৩টি কেন্দ্রে ৩০৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৯৪ জন উপস্থিত এবং ১৩ জন অনুপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আামিনুল ইসলাম খান চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ কেন্দ্র পরীক্ষা পরিদর্শন করেন। তিনি জানান, সকল পরীক্ষা কেন্দ্রে নকলমুক্ত ও সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা পরীক্ষা কেন্দ্রগুলো তদারকি করছেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, সারাদেশের ন্যায় মেহেরপুরেও শুরু হয়েছে এইচএসসি পরীক্ষা। মেহেরপুর জেলার তিন উপজেলার ১৪ কেন্দ্রে একযোগে পরীক্ষা শুরু হয়। মেহেরপুরে এবার (২০২২ শিক্ষাবর্ষে) এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ১৪টি কেন্দ্রে অংশ নিচ্ছে ৫ হাজার ৮৬৮ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে যশোর বোর্ডের অধীনে সাধারণ ৪ হাজার ৯শ, এইচএসসি (ভোকেশনাল) ৮১২ ও দাখিলের ১৫৬ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। নকলমুক্ত ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন থেকে সকল প্রকার প্রস্তুতি নেয়া হয়। পরীক্ষার হলে সকল ধরনের অসাধু উপায় বর্জনের জন্যে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া হুঁশিয়ারি রয়েছে। শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি যদি কোনো শিক্ষক অসাধু উপায় অবলম্বন করেন এবং তা যদি প্রমাণিত হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানা যায়। মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মনছুর আলম খান ও পুলিশ সুপার মো. রাফিউল আলম মেহেরপুরে অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষার বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খান এবং পুলিশ সুপার মো. রাফিউল আলম পরীক্ষা কেন্দ্রের পরিস্থিতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং শান্তিপূর্ণভাবে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সম্পন্ন হবে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More