দেশে করোনায় আরও ২৬ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: দেশে করোনায় মৃত্যু কমলেও কিছুটা বেড়েছে শনাক্ত। করোনায় একদিনে আরও ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আগের দিন মারা যায় ৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২ হাজার ৩১০ জন। ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ ধরা পড়েছে আরও ১ হাজার ৫০৪ জনের মধ্যে। আগের দিন শনাক্ত হয়েছিল ১ হাজার ৪৫৭ জন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬৯৮ জন হয়েছে। সরকারি হিসাবে আক্রান্তদের মধ্যে একদিনে আরও ১ হাজার ৫২৯ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ২৯ হাজার ৩৯ জন। শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিলো গত বছর ৮ মার্চ, তা সাড়ে সাত লাখ পেরিয়ে যায় ২৭ এপ্রিল। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে গত ৭ এপ্রিল রেকর্ড ৭ হাজার ৬২৬ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। গত ১১ মে তা সাড়ে ১২ হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ১৯ এপ্রিল রেকর্ড ১১২ জনের মৃত্যুর খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৪৮২টি ল্যাবে ১৮ হাজার ২৯৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৫৭ লাখ ৯৩ হাজার ১৭৭টি নমুনা। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪২ লাখ ৩৮ হাজার ৭২২টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৫ লাখ ৫৪ হাজার ৪৫৫টি। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৮ দশমিক ২২ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৬ শতাংশ।
এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ১৯ জন পুরুষ এবং নারী সাতজন। এদের মধ্যে ২৩ জন সরকারি হাসপাতালে ও তিনজন বেসরকারি হাসপাতালে মারা যান। তাদের মধ্যে ১৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, আটজনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, দুজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছর, একজনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছর এবং একজনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে তিনজন ঢাকা বিভাগের, ছয়জন চট্টগ্রাম বিভাগের, চারজন রাজশাহী বিভাগের, ১০ জন খুলনা বিভাগের, একজন সিলেট বিভাগের, একজন রংপুর বিভাগের এবং একজন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। এ পর্যন্ত মৃত ১২ হাজার ৩১০ জনের মধ্যে ৮ হাজার ৯০৩ জন পুরুষ এবং ৩ হাজার ৪০৭ জন নারী।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More