প্রাথমিকের শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা : মূল্যায়ন যেভাবে

স্টাফ রিপোর্টার: প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না, এটি আগেই জানা গেছে। নতুন সিদ্ধান্ত হলো, চলতি শিক্ষাবর্ষেও প্রাথমিকের সব শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মূল্যায়ন করে পরবর্তী শ্রেণিতে উন্নীত করার ব্যবস্থা নেবে। এর মানে হলো এ বছরও প্রথাগত বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না। ওয়ার্ক শিটসহ (বাড়ির কাজ) বা অ্যাসাইনমেন্টের মতো কিছু পদক্ষেপের মাধ্যমে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করবে নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। গত ২৬ অক্টোবর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হলেও গতকাল সোমবার ওই সভার কার্যবিবরণী প্রকাশ করা হয়েছে। এতে বলা হয়, ২৬ অক্টোবরের সভায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষাসচিব গোলাম মো. হাসিবুল আলম বলেন, ২০২০ শিক্ষাবর্ষে যেভাবে নিজ নিজ বিদ্যালয়ের মাধ্যমে মূল্যায়ন করা হয়েছে, সেভাবে ২০২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদেরও মূল্যায়ন করা যেতে পারে। সভার সভাপতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনসহ সভায় উপস্থিত সবাই এ বিষয়ে একমত পোষণ করেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে গত বছরও এসব পরীক্ষা হয়নি। পরীক্ষা ছাড়াই শিক্ষার্থীদের ওপরের শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হয়। এর আগে গত মাসেই জানা যায়, এ বছর পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না। ওই সময় এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নির্দেশনা চেয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় যে সারসংক্ষেপ পাঠিয়েছিল, সেটি অনুমোদন হয়ে ফিরে আসে। ২৬ অক্টোবর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয় যে এ বছরের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হবে না। অন্যদিকে এ বছরের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষাও হচ্ছে না। তবে মাধ্যমিকে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত তিন বিষয়ে (বাংলা, ইংরেজি ও গণিত) বার্ষিক পরীক্ষা এবং দশম শ্রেণির প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More