‘মুজিববর্ষে শতঘণ্টা মুজিবচর্চা’ শীর্ষক আলোচনাসভায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে চলেছে

মেহেরপুর অফিস: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘মুজিববর্ষে শতঘণ্টা মুজিবচর্চা’ শীর্ষক আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। গতকাল শনিবার রাতে জুমের মাধ্যমে এ আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে জুমের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, আমরা গর্ববোধ করি যে আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমাদের বঙ্গবন্ধুকে জানার পথটি উন্মুক্ত করতে হবে। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে হত্যা করেছিলো। তারা বঙ্গবন্ধুকে জানার সুযোগ দেয়নি। যারা শেখ রাসেলের মতো শিশুকে হত্যা করেছিলো। যারা মানবতাকে হত্যা করেছে। রেডিও-টেলিভিশনেও বঙ্গবন্ধুর নাম উচ্চারণ করা নিষিদ্ধ করেছিলো। জাতির পিতার নামকে মুছে দিয়েছিলো। আমরা সেই জায়গা থেকে দেশকে উত্তোরণ করতে পেরেছি। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। জ্ঞানে-বিজ্ঞানে বাংলাদেশ এখন উন্নত। বাংলাদেশ এখন আধুনিক বিশে^র সব সুযোগ সুবিধা অর্জন করেছে। আমরা বিশে^র ৫৭ তম দেশ হিসেবে স্যাটেলাইট উৎক্ষেণ করেছি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে চলেছে। তিনি আরো বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ কোভিট-১৯ মধ্যে এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে এগিয়ে গেছে। তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকলে কৃষক ভালো থাকে; জনগণ ভালো থাকে। দেশ সন্ত্রাসমুক্ত থাকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। এ সময় তিনি তার বৃহৎ আলোচনায় বলেন, বঙ্গবন্ধু এই প্রথম বাংলাদেশীদের জন্য একটি জাতি রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। যে জাতি রাষ্ট্র একটি ভাষা ভিত্তিক ও অসাম্প্রদায়িক জাতি রাষ্ট্র। বঙ্গবন্ধু যে কারণে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী। জাতি সত্ত্বার দৃষ্টিকোন থেকে বাঙালীরা পৃথিবীর তৃতীয় বৃহত্তর জনগোষ্ঠী। চায়নাতে হার্নরা বড় জাতি গোষ্ঠী, আবররা ২য় বৃহত্তর রাষ্ট্রগোষ্ঠী। এদের রাষ্ট্র ছিলো ও আছে। কিন্তু ১৯৭১ আগে বাঙালীদের কোনো রাষ্ট্র ছিলো না। বঙ্গবন্ধু সেই রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ নামের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে আমাদের জানা দরর্কা। তা না হলে আমরা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে জানতে পারবো না। বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে জানতে পারবো না।

জুম কনফারেন্সে অন্যান্যের মধ্যে মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান, সাবেক সংসদ সদস্য মকবুল হোসেন, পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলী, মেহেরপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ শফিউল আলম সরদার, অধ্যাপক (অবঃ) হাসানুজ্জামান মালেক, পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্য্য, মেহেরপুর জেলা আওয়াামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাংনী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ খালেক, সহসভাপতি আব্দুল হালিম, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. এসএম ইব্রাহীম শাহীন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদুল আলম প্রমুখসহ বিভিন্ন  শ্রেণি-পেশার মানুষ আলোচনাসভায় অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More