আলমডাঙ্গার ভোগাইলবগাদি গ্রামে বিদ্যালয়ের দরজা ভেঙে শিশুকন্যার মর্মান্তিক মৃত্যু

ঈদে নানাবাড়ি বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো নাতনী

আলমডাঙ্গা ব্যুরো/আসমানখালী প্রতিনিধি: আলমডাঙ্গায় বিদ্যালয়ের দরজা ভেঙে এক শিশুকন্যার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ভোগাইলবগাদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুকন্যা সিনথিয়া ঈদের আগে তার নানাবাড়ি ভোগাইলবগাদি গ্রামে আসে। সে কালিদাসপুর গ্রামের সুমন আলীর মেয়ে। গতকালই কালিদাসপুর গ্রামের কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। একমাত্র সন্তান শিশুকন্যার অকাল মৃত্যুতে পাগলপ্রায় বাবা-মা।

জানা গেছে, ঈদ উপলক্ষে ৫ বছর বয়সী মেয়ে সিনথিয়াকে নিয়ে পিতার বাড়ি আলমডাঙ্গার ভোগাইলবগাদি যান কালিদাসপুর গ্রামের সুমন আলীর স্ত্রী। ভাংবাড়িয়া ইউনিয়নের ভোগাইলবগাদি গ্রামে পিতা আজিজুল ইসলামের বাড়িতে বেড়াতে এসে মেয়েকে নিয়ে সেখানে ঈদ উদযাপন করেন তিনি। কয়েকদিনের মধ্যে নিজবাড়ি কালিদাসপুরে ফেরার কথাও ছিলো। এ ক’দিন শিশুকন্যা সিনথিয়া তার মামাতো ভাই-বোনদের সাথেই খেলাধুলা করে বেড়িয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলেও ভাইবোনদের সাথে খেলাধুলা করার জন্য বের হয় সে। নানাবাড়ির পাশে ভোগাইলবগাদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে অন্যদের মতো সিনথিয়াও খেলছিলো। একপর্যায়ে তারা সবাই বিদ্যালয়ের লোহার দরজা ধরে ঝুলতে থাকে। সিনথিয়াও দরজা ধরে খেলছিলো। হঠাৎ গেটের পিলারসহ লোহার দরজা ধসে পরে। দেয়াল ও দরজার নিচে চাপা পরে শিশু সিনথিয়া। অন্যান্য শিশুদের কাছে শুনে স্থানীয়রা গিয়ে দরজার নিচ থেকে তাকে উদ্ধার করে। দ্রুত নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে। জরুরী বিভাগে নেয়া হলে সিনথিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত ডা. জান্নাতুল ফেরদৌস। তার মাথায় গুরুতর আঘাত লেগেছে। তাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালের জরুরী বিভাগে যখন নিয়ে আসা হয়। ধারণা করা হচ্ছে মাথায় গুরুতর আঘাতের কারণে হাসপাতালে নেয়ার পথেই শিশুকন্যার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শিশুকন্যা সিনথিয়ার লাশ কালিদাসপুর গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

এদিকে, একমাত্র শিশুকন্যার অকাল মৃত্যুতে শোকে পাগলপ্রায় হয়ে পড়েছে তার বাবা-মা। নানাবাড়ি বেড়াতে গিয়ে নিজবাড়িতে মেয়ের লাশ হয়ে ফেরা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না বাবা সুমন মিয়া। সিনথিয়ার বাবা-মায়ের আহাজারিতে শোকে কাতর হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। নানাবাড়িতে বেড়াতে এসে ফুটফুটে শিশুকন্যা সিনথিয়ার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ভোগাইলবগাদি গ্রামের বাতাস ভারি হয়ে ওঠে। তেমনি কালিদাসপুর গ্রামেও চলছে শোকের মাতম।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More