আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনীত দুজনসহ মেয়র পদে ৪ জনের মনোনয়ন জমা

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ১৩ ও সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ৩৮ জন

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনীত ২ জনসহ মেয়র পদে ৪জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৯টি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৮ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। গতকাল রোববার ছিলো আলমডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। সকাল থেকেই আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচন অফিস ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের অফিসে ছিলো প্রার্থী এবং কর্মীদের ভিড়। বেলা বাড়ার সাথে সাথে প্রার্থীরা তাদের দলীয় নেতাকমী ও সমর্থকদের নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় নৌকা প্রতীকের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ হাসান কাদির গনু। বিএনপির দলীয় ধানের শীষ প্রতীকের মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ মীর মহিউদ্দিন। এছাড়াও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মতিয়ার রহমান ফারুক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এম সবেদ আলী।
আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগের দলীয় নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আলহাজ হাসান কাদির গনু আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। হাসান কাদির গনু দ্বিতীয় বারের মতো নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন লাভ করে মনোনয়নপত্র জমা দেন। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও তিনবারের নির্বাচিত পৌর মেয়র। শেষদিনে বেলা ১১টার দিকে দলীয় কার্যালয় থেকে বিশাল র‌্যালি নিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসে নৌকা প্রতীকের দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন। এ সময় দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে নিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌসের নিকট আওয়ামী লীগের দলীয় নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। মনোনয়নপত্র জমাদানকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ব্যবসায়ী আলহাজ লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, যুগ্মসম্পাদক কাজী রবিউল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী খালেদুর রহমান অরুন, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহমেদ ডন, ক্রীড়া সম্পাদক ও বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলা মহিদ, বণিক সমিতির সভাপতি আরেফিন মিয়া মিলন, সম্পাদক কামাল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টুসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের কয়েকশ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আলহাজ মীর মহিউদ্দিন দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। আলহাজ মীর মহিউদ্দিন জেলা বিএনপির নেতা ও আলমডাঙ্গা পৌরসভার পরপর দু’বারের সাবেক পৌর মেয়র। শেষ দিনে বেলা ২টার দিকে প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীসহ দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে আলমডাঙ্গা নির্বাচন অফিসে আসেন। এ সময় তিনি উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌসের নিকট বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য শরীফুজ্জামান শরিফ, উপজেলা বিএনপির সভাপতি শহিদুল কাউনাইন টিলু, সম্পাদক শেখ সাইফুল ইসলাম, বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন, বোরহান উদ্দিন, আইয়ুব আলী, আব্দুর রাজ্জাক, নান্নু মিয়া, বাবলু মিয়া, চেরাগ আলীসহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের শতাধিক নেতাকর্মীরা।
আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে মতিয়ার রহমান ফারুক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। মতিয়ার রহমান ফারুক আলমডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। শেষ দিনে বিকেলে তিনি তার প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারী এবং সমর্থকদের সাথে করে নিজ অফিস থেকে একটি র‌্যালি নিয়ে নির্বাচন অফিসে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন। উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌসের নিকট স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মিজানুর রহমান রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু জিহাদ, কোষাধ্যক্ষ শরীফুল ইসলাম শাকা, শ্রম সম্পাদক সাগর, দফতর সম্পাদক মাসুদ সালেহীন উৎপল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল লতিফ প্রধান, জিহাদ, আব্দুল কাদের ম-ল, ইমাদুল হক, মফিজ, দেবদাস, ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি শুভ, আলমডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগ নেতা সৈকত আহম্মেদ, অভি প্রমুখ।
আলমডাঙ্গা পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে এম সবেদ আলী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা এম সবেদ আলী আলমডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক পৌর চেয়ারম্যান, জেলা জাসদের সভাপতি। শেষ দিনে বিকেলে প্রস্তাবকারী ও সমর্থনকারীসহ এলাকার গণ্যমাণ্য ব্যক্তিদের নিয়ে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসেন। উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার এমএজি মোস্তফা ফেরদৌসের নিকট স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আলহাজ আনিসুজ্জামান আনু মিয়া, আলহাজ শহিদুল ইসলাম ম-ল, মীর মনিরুজ্জামান, আলহাজ রফিকুল ইসলাম, মোল্লা গোলাম সরোয়ার প্রমুখ।
মহিলা সংরক্ষিত আসনে কাউন্সিলর পদে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১, ২, ৩নং ওয়ার্ডে কল্পনা খাতুন, রুমা খাতুন ও শিপ্রা বিশ^াস। ৪, ৫, ৬নং ওয়ার্ডে রাবেয়া খাতুন, রেখা খাতুন, সুফিয়া খাতুন, আয়েশা সিদ্দিকা ও জহুরা খাতুন। ৭, ৮, ৯নং ওয়ার্ডে নুরজাহান খাতুন, রীতা খাতুন, রসিদা খাতুন, আরজিনা খাতুন ও মনোয়ারা খাতুন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
পৌর নির্বাচনে সাধারণ আসনে কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ১নং ওয়ার্ডে আলাল উদ্দিন, মাসুদ রানা তুহিন, শরীফুল ইসলাম, নাহিদ হাসান তমাল ও মিকাইল হোসেন। ২নং ওয়ার্ডে কাজী আলী আজগর সাচ্চু ও খন্দকার মজিবুল ইসলাম। ৩নং ওয়ার্ডে জহুরুল ইসলাম স্বপন, দীনেশ কুমার বিশ^াস ও নওশের আলী। ৪নং ওয়ার্ডে সদর উদ্দিন ভোলা, শাহীন রেজা, আকতারুজ্জামান, ইলিয়াস হোসেন, আলম হোসেন, কাজী হাবিবুর রহমান, পরিমল কুমার ঘোষ কালু, বিমল কুমার বিশ^াস ও জয়নাল আবেদীন। ৫নং ওয়ার্ডে আব্দুল গাফফার, সিরাজুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম ও মশিউর রহমান। ৬নং ওয়ার্ডে রেজাউল হক তবা, ডালিম হোসেন, আবুল কাশেম, জাহাঙ্গীর আলম ও লালন আলী। ৭নং ওয়ার্ডে ফারুক হোসেন, বাপ্পি, শামীম আশরাফ ও আসাদুল হক। ৮নং ওয়ার্ডে জাহিদুল ইসলাম, দেলোয়ার মোল্লা ও আশরাফুল হোসেন। ৯নং ওয়ার্ডে মামুন অর রশিদ হাসান, সাইফুল মুন্সি ও সেলিম রেজা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More