সড়ক দূর্ঘটনা রোধে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন

চুয়াডাঙ্গা জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার: পবিত্র রমজান শেষে পবিত্র ঈদুল ফিতর শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উদযাপনে সন্তোষ প্রকাশ করে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান বলেছেন, ‘সড়ক দূর্ঘটনা রোধে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। মোটরসাইকেল চালক আরোহীদের অবশ্যই হেলমেট পরতে হবে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণার পাশাপাশি অনমনীয় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হবে।’
রোববার ৮ মে সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আরও বলেন, চুয়াডাঙ্গার সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ সর্বস্তরের দায়িত্বশীল সকলেই আন্তরিকভাবে দায়িত্বপালন করছেন। এ ধরা অব্যাহত রাখতে আমাদের সকলকেই সর্বদা সচেষ্ট থাকতে হবে। সড়কে অবৈধ যান উচ্ছেদে যেমন পর্যায়ক্রমে পদক্ষেপ নেয়া হবে, তেমনই সড়ক নিরাপদ করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের বেশি বেশি করে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আইন প্রতিপালনে সকলকে সজাগ করে তুলতে হবে। সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে সরকারি স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্রগুলোর পরিবেশ উন্নত করতে হবে। এ ক্ষেত্রে জেলার স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্বশীলদের পাশাপাশি উপজেলা নির্বাহী অফিসারদেরও বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে। যাতে দালাল চক্র সরল সোজা রোগী সাধারনের সাথে প্রতারণা করতে না পারে। সড়কের যেসব স্থানে ইটভাটার মাটি পড়ে দুর্ঘটনার ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলেছে সেসব স্থান থেকে ইটভাটা মালিকদের মাটি দ্রুত অপসারণের পাশাপাশি কোন মাটি বহনকরা ট্রাক, ট্রলি থেকে মাটি পড়ছে দেখলে বড়ধরণের জরিমানা করে সড়ক নিরাপদ করার ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরিন গত সভার কার্যবিবরণী উপস্থাপন করেন। এ সভায় জেলা প্রশাসক সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, সড়কের ধারে, হাট বাজারে এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার আশে পাশে কোন বৃক্ষ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকলে তা সংশ্লিষ্ট দফতর প্রধান অবিলম্বে অপসারণ করবে। মরাগাছের ডাল পড়ে প্রাণহানী কোনভাবে কাম্য নয়। চুয়াডাঙ্গার পৃথক স্থানে এ ধরণের দুর্ঘটনা আমাদের ব্যাথিত করেছে।
আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় পুলিশ সুপারের পক্ষে প্রতিনিধি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, জীবননগর উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি সরদার আল আমিনসহ অনেকেই আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More