করোনার উপসর্গে আরও ১৭ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: মহামারি করোনার উপসর্গ জ্বর, গলা ব্যথা, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে গত রোববার বিকেল থেকে গতকাল সোমবার বিকেল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা পরীক্ষার জন্য মৃতদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের দাফন করা হয়েছে। মৃতদের মধ্যে খুলনা ও চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে চারজন করে রয়েছেন। হাজীগঞ্জের মৃতরা হলেন চাঁদপুর গ্রামের কাজী বাড়ির মো. শাহজাহান (৬৫)। তিনি চাঁদপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে মারা যান। পশ্চিম হাটিলা ইউনিয়নের কাঁঠালি গ্রামের সোলায়মান পাটোওয়ারী (৬৫)। গন্ধর্ব্যপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের ডাটরা শিবপুর সর্দারবাড়ির মাওলানা এনায়েত উল্লাহ মাস্টার (৬০)। পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের এনায়েতপুর গ্রামের মো. ইসমাইল (৫৫)। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সোয়েব আহম্মদ চিশতি এ তথ্য জানান। খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডের মৃতরা হলেন নগরীর রায়ের মহলের দেলোয়ার হোসেন (৬৫)। দৌলতপুরের রাজীব হোসেনের মেয়ে মিম (১২)। সাতক্ষীরার তালার পাটকেলঘাটা থানার সুশান্ত ম-লের ছেলে রিপন (২২)। যশোরের কেশবপুর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের মোসলেম দফাদারের ছেলে মোহাম্মদ আলম (৩০)। খুমেক হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ও করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মিজানুর রহমান এ তথ্য জানান।
ফেনীর দাগনভূঁঞায় মারা গেছেন ৫৫ বছর বয়সি এক রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী। তার অ্যাজমা ছিলো। শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে পৌরসভার উত্তর শ্রীধরপুর গ্রামের বাড়িতে তিনি মারা যান। করোনার উপসর্গ নিয়ে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মিন্টু লালধর (৪০) নামে এক বনপ্রহরীর মৃত্যু হয়েছে। মিন্টু পরিবার নিয়ে নগরীর ঠাকুরপাড়ায় থাকতেন। এদিকে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের দর্জিপাড়া গ্রামে ৪৭ বছর বয়সি এক নারী গতকাল মারা গেছেন। ডা. আবুল কাশেম এ তথ্য জানান। ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় গতকাল ওয়াজেদ মিয়া (৭১) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তিনি শহরের নন্দীবাড়ি এলাকায় বাস করতেন। অপরদিকে ফরিদপুর করোনা ভাইরাস ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল ৩৪ বছর বয়সি এক ব্যক্তি মারা গেছেন। তার বাড়ি সদর উপজেলায়।
এদিকে গতকাল পটুয়াখালী সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে মারা গেছেন ৪২ বছর বয়সি এক ব্যক্তি। বগুড়ার জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রোববার রাতে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির বয়স ৮০ বছর। তিনি ধুনট উপজেলার বাসিন্দা। কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মো. সিরাজ মিয়া (৬৫) ও শাহানা বেগম (৭০) নামের আরো দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। সিরাজ মিয়া শহরের জগন্নাথপুর দক্ষিণ ও শাহানা বেগম ভৈরবপুর উত্তরপাড়া এলাকার বাসিন্দা। সিরাজ রোববার বাজিতপুরের ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। মোস্তফা কামালের স্ত্রী শাহানা বেগম গতকাল ভোরে নিজ বাড়িতে মারা যান।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More