যশোর-৬ বগুড়া-১ আসনে উপনির্বাচন আজ

স্টাফ রিপোর্টার: আজ জাতীয় সংসদের যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসনে উপনির্বাচন। নির্বাচনি মালামাল ও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সুরক্ষাসামগ্রী পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রে কেন্দ্রে। দুই নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার (আজ) সকালে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ব্যালটপেপার পাঠানো হবে। সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দুই আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলবে।
এদিকে যমুনা নদীর পানি বেড়ে গতকাল সোমবার চারটি ভোটকেন্দ্র প্লাবিত হয়েছে। এসব কেন্দ্র সরিয়ে নতুন বেড়িবাঁধ এলাকায় অস্থায়ী কেন্দ্র করতে হবে বলে বগুড়া-১ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ইসির উপসচিব মাহবুব আলম শাহ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘কমিশন ইতোমধ্যে আমাদের বলেছে, পানি বাড়তে থাকলে বিকল্প প্রস্তাব দ্রুত অনুমোদন দেবে।’ বিএনপি ও জাতীয় পার্টি-জাপার প্রার্থী থাকলেও ভোট নিয়ে তাদের অনীহার মধ্যে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর জন্য এটা হতে যাচ্ছে অনেকটা ‘আনুষ্ঠানিকতার’ নির্বাচন। বিএনপি বলছে, এ সময় ভোটে অংশগ্রহণ থাকবে না; আর জাতীয় পার্টি ভোট পেছানোর দাবি জানিয়ে সাড়া পায়নি।
এর আগে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর দিকে অনুষ্ঠিত তিন উপনির্বাচনের মধ্যে ইভিএমের ভোটে ঢাকা-১০ আসনে ভোট পড়েছিলো শতকরা মাত্র ৫ ভাগ। আর ব্যালটের ভোটে গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ আসনে উপস্থিতি ছিলো যথাক্রমে ৬০ ও ৬৯ শতাংশ।
১৮ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে বগুড়া-১ এবং ২১ জানুয়ারি একই দলের ইসমাত আরা সাদেকের মৃত্যুতে যশোর-৬ আসন ফাঁকা হয়। ২ লাখ ৩ হাজার ১৮ জন ভোটারের যশোর-৬ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন শাহীন চাকলাদার (নৌকা), আবুল হোসেন আজাদ (ধানের শীষ) ও হাবিবুর রহমান হাবিব (লাঙ্গল)। আর ৩ লাখ ৩০ হাজার ৮৯৩ ভোটারের বগুড়া-১ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন সাহাদারা মান্নান (নৌকা), একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির (ধানের শীষ), মোকছেদুল আলম (লাঙ্গল), মো. রনি (বাঘ), নজরুল ইসলাম (বটগাছ) ও ইয়াসির রহমতুল্লাহ ইন্তাজ (স্বতন্ত্র-ট্রাক)।
এদিকে বগুড়া-১ আসনের উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা উপসচিব মাহবুব আলম শাহ আরও জানিয়েছেন, বন্যাকবলিত এলাকা হওয়ায় বগুড়ার অন্তত ১০টি ভোটকেন্দ্র স্থানান্তরিত করে উঁচু ও নিরাপদ জায়গায় স্থাপন করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রের তালিকা গেজেটও করা হয়েছে। কোনোভাবেই ভোট দিতে আর অসুবিধা হবে না, ভোটাররাও নির্বিঘেœ আসতে পারবেন।
এপ্রিল-মে মাসে শূন্য হওয়া পাবনা-৪ ও ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচন করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে ৯০ দিনের মধ্যে করা সম্ভব হবে না জানিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ইসি সচিবালয়। সংসদ সদস্য শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর মৃত্যুতে পাবনা-৪ ও হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫ আসন শূন্য হয়। মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া সিরাজগঞ্জ-১ আসন এবং সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা-১৮ আসনেও সামনে উপনির্বাচন করতে হবে ইসিকে।

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More