কিশোর চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইক নিয়ে চম্পট

চুয়াডাঙ্গা-ঝিনাইদহ সড়কে প্রতারকচক্রের অপতৎপরতা বৃদ্ধি
পাঁচমাইল প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গাসহ পাশর্^বর্তী এলাকায় অজ্ঞানপার্টির অপতৎপরতা আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গতকাল সোমবার কিশোর চালক শফিকুলকে (১৫) অজ্ঞান করে তার ইজিবাইক নিয়ে চম্পট দিয়েছে প্রতারকচক্র। সরোজগঞ্জের অদূরবর্তী কানাপুর নামক স্থান থেকে শফিকুলকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা গাড়াবাড়িয়ার মৃত আশরাফ উদ্দীনের ছেলে শফিকুলকে ১৫ বছর বয়সেই সংসারের হাল ধরতে হয়েছে। সে জেলা শহরের ফার্মপাড়ার রাজমহল গ্যারেজ থেকে ইজিবাইক নিয়ে ভাড়ায় চালাতো। যা রোজগার হতো তা দিয়ে চলতো তার সংসার। এ তথ্য জানিয়ে শফিকুলের ভাই আরিফুল ইসলাম আরিফ বলেছেন, আমরা দু ভাই এক বোন। পিতা মারা গেছেন ৩ বছর আগে। পিতার অবর্তমানে আমাদেরই ধরতে হয়েছে সংসারের হাল। মাকে নিয়ে শফিকুল আলাদা থাকে। রাজমহল গ্যারেজ থেকে ইজিবাইক ভাড়ায় নিয়ে চালিয়ে সংসার চালিয়ে আসছিলো। প্রতিদিনের মত সোমবার সকালে ইজিবাইক নিয়ে শফিকুল রাস্তায় বের হয়। শুনেছি সকাল আনুমানিক ৯টার দিকে ডিঙ্গেদহ বাজার থেকে অচেনা ৪ জন যাত্রী ওঠে ওর ইজিবাইকে। ওই যাত্রীদের দশমাইল বদরগঞ্জ বাজারে যাওয়ার কথা ছিলো। পরে শফিকুলের সাথে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে যায়। খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে বিকেলে সরোজগঞ্জ বাজারের অদূরবর্তী কানাপুকুর নামকস্থান থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার করা হয় তাকে।
পথিমধ্যে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা মলম কিম্বা অন্যকোনো কিছু দিয়ে অজ্ঞান করে শফিকুলকে রাস্তার অদূরে পুকুরের পাশে ফেলে রেখে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়েছে। শফিকুল সুস্থ হলে আরও বিস্তারিত জানা যাবে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে ইজিবাইক চালকদের মধ্যে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। অনেকেই বলেছেন, চুয়াডাঙ্গাসহ পাশর্^বর্তী এলাকায় অজ্ঞানপার্টির অপতৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন দিনের বেলায় প্রকাশ্যেই কৌশলে অজ্ঞান করে প্রতারকরা ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে।

 

এছাড়া, আরও পড়ুনঃ

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More